নোয়াখালীতে দুই ভাইসহ করোনায় আক্রান্ত আরও ২০ জন

  কোম্পানিগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি ১৫ মে ২০২০, ১৬:২৩:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীতে স্বাস্থ্যকর্মী, নার্স ও দুই ভাইসহ নতুন করে আরও ২০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯৭ জনে দাঁড়াল।

শুক্রবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নোয়াখালী সিভিল সার্জন ডা. মো. মোমিনুর রহমান।

তিনি বলেন, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নোয়াখালী সদরে ৩ জন, বেগমগঞ্জে ১২ জন, কবিরহাটে ৪ জন ও সুবর্ণচরে ১জন রয়েছেন।

একইদিনে করোনা মুক্ত হয়েছেন সোনাইমুড়িতে ১ জন, বেগমগঞ্জে ৬ জন, সদরে ২ জন ও চাটখিল উপজেলায় ২ জন।

এছাড়া মাইজদী শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামের অস্থায়ী আইসোলেশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭ জন।

সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. সালজার হোসেন বলেন, শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামের অস্থায়ী আইসোলেশন হাসপাতালে কর্মরত একজন নার্স (৩৫) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাকে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে। এছাড়া গত কয়েকদিন আগে করোনায় আক্রান্ত হওয়া সোনাপুর শ্রীপুরের ব্যবসায়ীর দুই ছেলেরও করোনা পজিটিভ ফল এসেছে। তিনজনকেই স্টেডিয়ামে আইসোলেশনে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শায়লা সুলতানা ঝুমা জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত একজন সেবিকা (২৫) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তাকে হাসপাতালের কোয়ার্টারে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। তার শ্বাসকষ্ট রয়েছে।

কবিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বিদ্যুৎ কুমার দাস বলেন, নতুন করে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে ৩২বছর বয়সী একজন কমিউনিটি ক্লিনিকের কর্মী রয়েছেন। তার বাড়ি নরোত্তমপুর ইউনিয়নের কালিরহাট এলাকায়। এছাড়াও বাটইয়া ইউনিয়নের ১৯ বছর বয়সী এক যুবতী, ২৭ বছরের এক যুবক ও ঘোষবাগ ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের এক ব্যক্তি (৩৪) রয়েছেন। যিনি ঢাকার একটি ক্লিনিকে চাকরি করতেন। আক্রান্তদের বাড়িগুলো লকডাউন করা হয়েছে। তাদের শরীরে কোনো উপসর্গ না থাকায় সবাইকে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার দাস জানান, নতুন করে উপজেলায় আরও ১২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে বেশির ভাগই চৌমুহনীর পৌরসভার বাসিন্দা।

জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত ৯৭ জনের মধ্যে বেগমগঞ্জে ৫১ জন, সদরে ১৬ জন, সোনাইমুড়িতে ১১ জন, হাতিয়ায় ৫ জন,সেনবাগে ১ জন, কবিরহাটে ৬ জন, চাটখিলে ৫ জন, কোম্পানীগঞ্জ ১ জন ও সুবর্ণচরে ১ জন রয়েছেন।

এদের মধ্যে মারা গেছেন - সোনাইমুড়ির মোরশেদ আলম (৪৫) নামে এক ইতালি প্রবাসী, সেনবাগে মো. আক্কাস (৪৮) ও বেগমগঞ্জে তারেক হোসেন (৩০) নামের এক ব্যবসায়ী।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত