শরীয়তপুরে সকালে করোনা জয়, সন্ধ্যায় মৃত্যু
jugantor
শরীয়তপুরে সকালে করোনা জয়, সন্ধ্যায় মৃত্যু

  শরীয়তপুর প্রতিনিধি  

১৫ মে ২০২০, ২১:৫৮:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় সকালে করোনামুক্ত ঘোষণা দেয়ার পর সন্ধ্যায় কবির জমাদ্দার (৮৭) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাজিরা উপজেলার জমাদ্দারকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুল হাসান বলেন, গত ২০ এপ্রিল ওই বৃদ্ধ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার আলী আজগর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পাশাপাশি করোনার নমুনা সংগ্রহ করে। পরদিন তিনি বাড়ি চলে আসেন।

২৩ এপ্রিল ডাক্তার তার শরীরে করোনা পজিটিভ বলে জানায়। এরপর ২৫ এপ্রিল জাজিরা উপজেলা প্রশাসন তার চিকিৎসার সার্বিক দায়িত্ব নেয়। তাকে তার বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়।

৭ মে তার নমুনা সংগ্রহ করে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ পুনরায় ঢাকায় প্রেরণ করে। গত বুধবার রাতে ঢাকা থেকে তার পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর জাজিরা উপজেলা প্রশাসন বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ প্রশাসন তার বাড়ি গিয়ে তাকে করোনামুক্ত ঘোষণা করে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কবির জমাদ্দার মারা যান। এ নিয়ে এলাকায় আতংক বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুল হাসান বলেন, প্রশাসনের সব পর্যায়ের কর্মকর্তারা কবির জমাদ্দারের বাড়ি গিয়ে তাকে করোনা মুক্ত হওয়ার খবর দেয়া হয়। তখন তিনি ও তার পরিবারের লোকজন আনন্দিত হয়েছিলেন। সন্ধ্যায় হঠাৎ তিনি মারা যান। তার দুটি কিডনি ডেমেজ হয়ে যাওয়াতে তিনি মারা গেছেন, করোনা রোগে নয়।

জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, তিনি বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছেন, করোনায় নয়।

শরীয়তপুরে সকালে করোনা জয়, সন্ধ্যায় মৃত্যু

 শরীয়তপুর প্রতিনিধি 
১৫ মে ২০২০, ০৯:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় সকালে করোনামুক্ত ঘোষণা দেয়ার পর সন্ধ্যায় কবির জমাদ্দার (৮৭) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাজিরা উপজেলার জমাদ্দারকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুল হাসান বলেন, গত ২০ এপ্রিল ওই বৃদ্ধ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার আলী আজগর  হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পাশাপাশি করোনার নমুনা সংগ্রহ করে। পরদিন তিনি বাড়ি চলে আসেন। 

২৩ এপ্রিল ডাক্তার তার শরীরে করোনা পজিটিভ বলে জানায়। এরপর ২৫ এপ্রিল জাজিরা উপজেলা প্রশাসন তার চিকিৎসার সার্বিক দায়িত্ব নেয়। তাকে তার বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়। 

৭ মে তার নমুনা সংগ্রহ করে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ পুনরায় ঢাকায় প্রেরণ করে। গত বুধবার রাতে ঢাকা থেকে তার পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর জাজিরা উপজেলা প্রশাসন বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ প্রশাসন তার বাড়ি গিয়ে তাকে করোনামুক্ত ঘোষণা করে। 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কবির জমাদ্দার মারা যান। এ নিয়ে এলাকায় আতংক বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুল হাসান বলেন, প্রশাসনের সব পর্যায়ের কর্মকর্তারা কবির জমাদ্দারের বাড়ি গিয়ে তাকে করোনা মুক্ত হওয়ার খবর দেয়া হয়। তখন তিনি ও তার পরিবারের লোকজন আনন্দিত হয়েছিলেন। সন্ধ্যায় হঠাৎ তিনি মারা যান। তার দুটি কিডনি ডেমেজ হয়ে যাওয়াতে তিনি মারা গেছেন, করোনা রোগে নয়। 

জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, তিনি বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছেন, করোনায় নয়।