চীনের উহানে করোনা পরীক্ষায় দীর্ঘ লাইন

  যুগান্তর ডেস্ক ১৬ মে ২০২০, ০৯:৪৫:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

মহামারী করোনাভাইরাসের উৎসস্থলচীনের উহানে নতুন করে প্রাণঘাতী ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ায় উদ্বিগ্ন সেখানকার বাসিন্দারা।

এ কারণে করোনা পরীক্ষা করতে আসা মানুষের ভিড় বেড়েছে সেখানে। দিন দশেক আগেই একবার পরীক্ষা হয়েছে। শুক্রবার আরও একবার করোনা পরীক্ষা করিয়ে গেলেন উহানের বছর চল্লিশের এক ব্যক্তি। খবর এএফপির।

ঝিরিঝিরি বৃষ্টি মাথায় লম্বা লাইনে অনেককে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। গত রোববার থেকে চীনের এই শহরে গুচ্ছ সংক্রমণের খবর পাওয়ার পরেই এলাকার সবার অর্থাৎ প্রায় ১ কোটি ১০ লাখ বাসিন্দার করোনা-পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

শহরের বেশ কয়েকটি পার্কিং লট, পার্কে তাঁবু খাটিয়ে অস্থায়ী করোনা-পরীক্ষা কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়েছে। পারস্পরিক দূরত্ববিধি মেনেই লাইনে দাঁড়িয়েছেন সবাই।

পরীক্ষাগার থেকে বেরিয়েই এক ব্যক্তি বললেন, সতর্ক থাকতে অসুবিধা কী! সুযোগ পেয়েছি যখন, পরীক্ষাটা করিয়েই নিলাম।

লাইনে দাঁড়ানো সবার মনের অবস্থা কিন্তু এতটাও পজেটিভ না। দ্বিতীয় দফার করোনা-ঝড়ের তাণ্ডব আঁচ করে উহানবাসীর অধিকাংশের চোখেমুখেই দুশ্চিন্তার ছাপ স্পষ্ট।

যেভাবে এতো মানুষের পরীক্ষা হচ্ছে, তাতে পরীক্ষাগার থেকেই আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা করছেন অনেকেই। করোনার প্রকোপে এই শহরে প্রথম দফায় প্রাণ গিয়েছে প্রায় চার হাজার লোকের। ২৩ জানুয়ারি থেকে প্রায় তিন মাস লকডাউন ছিল উহানে। এপ্রিলের গোড়ায় সবেমাত্র শহরটি ছন্দে ফিরতে শুরু করেছিল। তার পরেই নতুন করে ১৫ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে।

এর মধ্যে ১১ জনেরই কোনো কোভিড-১৯ উপসর্গ ছিল না বলে দাবি প্রশাসনের। চীনের দাবি, এখন পর্যন্ত দেশের প্রায় ৮৩ হাজার আক্রান্তের মধ্যে ৭৮,২০০ রোগী করোনামুক্ত হয়ে বাড়িতে ফিরেছেন।

অস্বস্তি বেড়েই চলেছে আমেরিকা, রাশিয়া, ইউরোপের একটা বড় অংশে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাশিয়ায় ফের আক্রান্ত সাড়ে ১০ হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়েছে। আমেরিকায় মৃতের সংখ্যা প্রায় ৮৭ হাজার।

সবচেয়ে খারাপ হাল নিউ ইয়র্ক প্রদেশের। তবু প্রদেশের মধ্যে যে সব এলাকায় সংক্রমণের হার তুলনায় কম সেখানে শনিবার থেকে ধীরে ধীরে অর্থনীতি সচল করার নির্দেশ দিয়েছেন গভর্নর অ্যান্ড্রু কুয়োমো।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত