তামিমের অতিথির হট সিটে বসছেন কেন উইলিয়ামসন
jugantor
তামিমের অতিথির হট সিটে বসছেন কেন উইলিয়ামসন

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২০ মে ২০২০, ১১:৪১:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

আরও একটি চমক নিয়ে হাজির হচ্ছেন তামিম ইকবাল। এবার তিনি লাইভ অনুষ্ঠানে আনছেন নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং মাস্টার কেন উইলিয়ামসনকে। ২১ মে দুপুর ৩টায় শুরু হবে তাদের আড্ডা। বরাবরের মতো জানা যাবে সাফল্যের পেছনের গল্প এবং ক্রিকেটারদের অজানা নানা তথ্য।

এখন পর্যন্ত সবকটি লাইভ রাত সাড়ে ১০টায় করেছেন তামিম। তবে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের সময়ের পার্থক্যের কারণে এদিন দুপুরে শোটি করবেন তিনি।

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবলীলায় আপাতত ক্রিকেট বন্ধ। ব্যাট-বলের রোমাঞ্চকর লড়াই দেখা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন দেশের কোটি ক্রিকেটপ্রেমী। উপরন্ত জীবননাশের শঙ্কায় ভুগছেন তারা। তাদের একটু আয়েশ দিতেই মূলত ফেসবুক লাইভ সেশন শুরু করেন তামিম। বাংলাদেশ উইকেটরক্ষ-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমকে দিয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়া এ অনুষ্ঠানের সূচনা করেন তিনি।

পরে একে একে হাজির হন দেশের তারকা ক্রিকেটাররা। শুরুর দিকে তামিমের অতিথি হয়ে আসেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন ও নাসির হোসেন। পরে তার সঙ্গে আড্ডা দেন মুমিনুল হক, তাইজুল ইসলাম, লিটন দাস, সৌম্য সরকার ও শফিউল ইসলাম।

মাঝপথে বাংলাদেশের সাবেক তিন ক্রিকেটার খালেদ মাহমুদ সুজন, নাইমুর রহমান দুর্জয় এবং হাবিবুল বাশারকে নিয়ে লাইভ সেশন চালান তামিম। ধীরে ধীরে অনুষ্ঠানটি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। ফলে দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশি তারকাদের দিকে হাত বাড়ান তিনি। তাতেও পান স্বতস্ফূর্ত সাড়া।

গেল বুধবার প্রথম বিদেশি অতিথি হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসকে আনেন তামিম। এর পর তার চমক অব্যাহত রয়েছে। সেই রেশ না কাটতেই টাইগার ড্যাশিং ওপেনারের মঞ্চে হাজির হন ভারতের হিটম্যান রোহিত শর্মা।

তবে তামিম সম্ভবত সবচেয়ে বড় চমক উপহার দেন গেল শুক্রবার। তার অতিথির হট সিটে বসেন ভারতীয় অধিনায়ক এবং বর্তমান বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি।

এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার বাঁহাতি ওপেনারের অনুষ্ঠানে আসেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম। লাল-সবুজ জার্সিধারীদের সাবেক তিন কাণ্ডারি খালেদ মাসুদ পাইলট, আকরাম খান ও মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর সঙ্গে আড্ডায় মাতেন তিনি। যথারীতি তামিমের বুদ্ধিদীপ্ত উপস্থাপনায় প্রায় ঘণ্টাখানেক ধরে চলে এ লাইভ অনুষ্ঠান।

তামিমের অতিথির হট সিটে বসছেন কেন উইলিয়ামসন

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২০ মে ২০২০, ১১:৪১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আরও একটি চমক নিয়ে হাজির হচ্ছেন তামিম ইকবাল। এবার তিনি লাইভ অনুষ্ঠানে আনছেন নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং মাস্টার কেন উইলিয়ামসনকে। ২১ মে দুপুর ৩টায় শুরু হবে তাদের আড্ডা। বরাবরের মতো জানা যাবে সাফল্যের পেছনের গল্প এবং ক্রিকেটারদের অজানা নানা তথ্য।

এখন পর্যন্ত সবকটি লাইভ রাত সাড়ে ১০টায় করেছেন তামিম।  তবে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের সময়ের পার্থক্যের কারণে এদিন দুপুরে শোটি করবেন তিনি।

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবলীলায় আপাতত ক্রিকেট বন্ধ। ব্যাট-বলের রোমাঞ্চকর লড়াই দেখা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন দেশের কোটি ক্রিকেটপ্রেমী। উপরন্ত জীবননাশের শঙ্কায় ভুগছেন তারা। তাদের একটু আয়েশ দিতেই মূলত ফেসবুক লাইভ সেশন শুরু করেন তামিম।  বাংলাদেশ উইকেটরক্ষ-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমকে দিয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়া এ অনুষ্ঠানের সূচনা করেন তিনি। 

পরে একে একে হাজির হন দেশের তারকা ক্রিকেটাররা। শুরুর দিকে তামিমের অতিথি হয়ে আসেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন ও নাসির হোসেন।  পরে তার সঙ্গে আড্ডা দেন মুমিনুল হক, তাইজুল ইসলাম, লিটন দাস, সৌম্য সরকার ও শফিউল ইসলাম।

মাঝপথে বাংলাদেশের সাবেক তিন ক্রিকেটার খালেদ মাহমুদ সুজন, নাইমুর রহমান দুর্জয় এবং হাবিবুল বাশারকে নিয়ে লাইভ সেশন চালান তামিম। ধীরে ধীরে অনুষ্ঠানটি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। ফলে দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশি তারকাদের দিকে হাত বাড়ান তিনি। তাতেও পান স্বতস্ফূর্ত সাড়া।

গেল বুধবার প্রথম বিদেশি অতিথি হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসকে আনেন তামিম। এর পর তার চমক অব্যাহত রয়েছে।  সেই রেশ না কাটতেই টাইগার ড্যাশিং ওপেনারের মঞ্চে হাজির হন ভারতের হিটম্যান রোহিত শর্মা। 

তবে তামিম সম্ভবত সবচেয়ে বড় চমক উপহার দেন গেল শুক্রবার। তার অতিথির হট সিটে বসেন ভারতীয় অধিনায়ক এবং বর্তমান বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। 

এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার বাঁহাতি ওপেনারের অনুষ্ঠানে আসেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম। লাল-সবুজ জার্সিধারীদের সাবেক তিন কাণ্ডারি খালেদ মাসুদ পাইলট, আকরাম খান ও মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর সঙ্গে আড্ডায় মাতেন তিনি।  যথারীতি তামিমের বুদ্ধিদীপ্ত উপস্থাপনায় প্রায় ঘণ্টাখানেক ধরে চলে এ লাইভ অনুষ্ঠান।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস