৫০ হুইলচেয়ার ক্রিকেটারকে আর্থিক সহায়তা দিলেন মুশফিক
jugantor
৫০ হুইলচেয়ার ক্রিকেটারকে আর্থিক সহায়তা দিলেন মুশফিক

  স্পোর্টস ডেস্ক  

২১ মে ২০২০, ১১:১৮:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবলীলায় ক্রান্তিকাল পার করছে বাংলাদেশ।  এতে সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েছেন সহায়-সম্বলহীন মানুষ। ব্যতিক্রম নন ক্রিকেটাররাও। তাদের অনেকের জীবন ওষ্ঠাগত, দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। 

প্রাণঘাতী ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই দুস্থ-অসহায়দের পাশে রয়েছেন টাইগার উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। এবার এ দুঃসময়ে দেশের ৫০ হুইলচেয়ার ক্রিকেটারকে আর্থিক সহায়তা দিলেন তিনি।

গেল বুধবার জাতীয় হুইলচেয়ার ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মোহাম্মদ মহসিন এ খবর নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আমরা যারা আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছি এবং জাতীয় দলের সঙ্গে আছি, এমন ৫০ জনকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন মুশফিক ভাই। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের হুইলচেয়ার ক্রিকেটাররা এ আর্থিক সহায়তা পাচ্ছেন। আমরা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে খেলোয়াড়দের অর্থ পাঠানোর ব্যবস্থা করছি।


মুশির সহায়তায় স্বভাবতই খুশি মহসিন। তিনি বলেন, এটি আমাদের জন্য খুবই সুসংবাদ। মিস্টার ডিপিন্ডেবলের মতো খেলোয়াড় আমাদের সহায়তায় এগিয়ে এসেছেন। 

দেশে করোনা সংক্রমণের সূচনা থেকেই গরিব-দুঃখীদের পাশে রয়েছেন মুশফিক। শুরু থেকেই তাদের সহযোগিতা করে যাচ্ছেন লাল-সবুজ জার্সিধারীদের সাবেক অধিনায়ক। অন্যান্য ক্রিকেটারের সঙ্গে একত্রে এক মাসের বেতনের অর্ধেকটা ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) তহবিল গঠনে সাহায্য করেছেন তিনি। 

নিজ জেলা বগুড়া মেডিকেল কলেজের স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ২০০ পিপিই ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার পাঠিয়েছেন মুশফিক। স্থানীয় কাউন্সিলরের সহযোগিতায় সেখানকার অসহায়দের মধ্যে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন তিনি।

এ ছাড়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ৩০ নেট বোলারকেও সহযোগিতা করেছেন এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম ডাবল-সেঞ্চুরি করা ব্যাট নিলামে তুলেন মুশফিক। ১৭ লাখ টাকায় তা কিনে চমক দেখায় পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন। প্রাপ্ত অর্থ জীবনঘাতী করোনা আক্রান্তদের সহায়তা করা হবে বলে জানান তিনি।

৫০ হুইলচেয়ার ক্রিকেটারকে আর্থিক সহায়তা দিলেন মুশফিক

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২১ মে ২০২০, ১১:১৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবলীলায় ক্রান্তিকাল পার করছে বাংলাদেশ। এতে সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েছেন সহায়-সম্বলহীন মানুষ। ব্যতিক্রম নন ক্রিকেটাররাও। তাদের অনেকের জীবন ওষ্ঠাগত, দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে।

প্রাণঘাতী ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই দুস্থ-অসহায়দের পাশে রয়েছেন টাইগার উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। এবার এ দুঃসময়ে দেশের ৫০ হুইলচেয়ার ক্রিকেটারকে আর্থিক সহায়তা দিলেন তিনি।

গেল বুধবার জাতীয় হুইলচেয়ার ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মোহাম্মদ মহসিন এ খবর নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আমরা যারা আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছি এবং জাতীয় দলের সঙ্গে আছি, এমন ৫০ জনকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন মুশফিক ভাই। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের হুইলচেয়ার ক্রিকেটাররা এ আর্থিক সহায়তা পাচ্ছেন। আমরা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে খেলোয়াড়দের অর্থ পাঠানোর ব্যবস্থা করছি।


মুশির সহায়তায় স্বভাবতই খুশি মহসিন। তিনি বলেন, এটি আমাদের জন্য খুবই সুসংবাদ। মিস্টার ডিপিন্ডেবলের মতো খেলোয়াড় আমাদের সহায়তায় এগিয়ে এসেছেন।

দেশে করোনা সংক্রমণের সূচনা থেকেই গরিব-দুঃখীদের পাশে রয়েছেন মুশফিক। শুরু থেকেই তাদের সহযোগিতা করে যাচ্ছেন লাল-সবুজ জার্সিধারীদের সাবেক অধিনায়ক। অন্যান্য ক্রিকেটারের সঙ্গে একত্রে এক মাসের বেতনের অর্ধেকটা ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) তহবিল গঠনে সাহায্য করেছেন তিনি।

নিজ জেলা বগুড়া মেডিকেল কলেজের স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ২০০ পিপিই ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার পাঠিয়েছেন মুশফিক। স্থানীয় কাউন্সিলরের সহযোগিতায় সেখানকার অসহায়দের মধ্যে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন তিনি।

এ ছাড়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ৩০ নেট বোলারকেও সহযোগিতা করেছেন এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম ডাবল-সেঞ্চুরি করা ব্যাট নিলামে তুলেন মুশফিক। ১৭ লাখ টাকায় তা কিনে চমক দেখায় পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন। প্রাপ্ত অর্থ জীবনঘাতী করোনা আক্রান্তদের সহায়তা করা হবে বলে জানান তিনি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস