এবার রাজশাহীতে করোনায় পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু
jugantor
এবার রাজশাহীতে করোনায় পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

  রাজশাহী ব্যুরো  

২৩ মে ২০২০, ১১:৪১:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীতে এবার করোনায় প্রাণ গেল একজন পুলিশ কর্মকর্তার। মোশাররফ হোসেন নামে ৫৭ বছর বয়সী একজন এসআই  শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজশাহীর খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

এ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে ১১ জন পুলিশ সদস্য প্রাণ দিলেন।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, মোশাররফ হোসেন পাবনা সুজানগরের বাসিন্দা। তবে তিনি রাজশাহী মহানগরীতে পরিবারসহ ভাড়াবাসায় থাকতেন। তিনি প্রেষণে নওগাঁয় কর্মরত ছিলেন। কয়েকদিন থেকে অসুস্থ ছিলেন মোশাররফ। গত বুধবার তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

এরপর বৃহস্পতিবার রাতে পরীক্ষার রিপোর্টে মোশাররফের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। শুক্রবার সকালে তাকে রাজশাহীর খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়। এখন পরীক্ষার জন্য আবারও তার নমুনা সংগ্রহ করা হবে বলেও জানান রামেক হাসপাতালের এই কর্মকর্তা।

নওগাঁর পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান মিয়া বলেন, মোশাররফ হোসেন নওগাঁর রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্সে (আরআরএফ) প্রেষণে কর্মরত ছিলেন। তার মূল কর্মস্থল রাজশাহী আরআরএফ। অসুস্থতার কারণে তিনি গেল ১৮ মে থেকে ছুটিতে রাজশাহী মহানগরীর ভাড়া বাসাতেই ছিলেন। মোশাররফ হোসেন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানতাম। তার মৃত্যুর খবরটি সম্পর্কে আমরা নিশ্চিত।

আরআরএফ  রাজশাহীর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আবদুল হান্নান বলেন, খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতাল থেকে মোশাররফ হোসেনের মরদেহ সুজানগরে পাঠানোর জন্য আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। একটি বিশেষ অ্যাম্বুলেন্সে পুলিশ পাহারায় তার মরদেহ বহন করা হবে। সুজানগরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাকে দাফন করা হবে।

এবার রাজশাহীতে করোনায় পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

 রাজশাহী ব্যুরো 
২৩ মে ২০২০, ১১:৪১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীতে এবার করোনায় প্রাণ গেল একজন পুলিশ কর্মকর্তার। মোশাররফ হোসেন নামে ৫৭ বছর বয়সী একজন এসআই শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজশাহীর খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

এ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে ১১ জন পুলিশ সদস্য প্রাণ দিলেন।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, মোশাররফ হোসেন পাবনা সুজানগরের বাসিন্দা। তবে তিনি রাজশাহী মহানগরীতে পরিবারসহ ভাড়াবাসায় থাকতেন। তিনি প্রেষণে নওগাঁয় কর্মরত ছিলেন। কয়েকদিন থেকে অসুস্থ ছিলেন মোশাররফ। গত বুধবার তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

এরপর বৃহস্পতিবার রাতে পরীক্ষার রিপোর্টে মোশাররফের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। শুক্রবার সকালে তাকে রাজশাহীর খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়। এখন পরীক্ষার জন্য আবারও তার নমুনা সংগ্রহ করা হবে বলেও জানান রামেক হাসপাতালের এই কর্মকর্তা।

নওগাঁর পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান মিয়া বলেন, মোশাররফ হোসেন নওগাঁর রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্সে (আরআরএফ) প্রেষণে কর্মরত ছিলেন। তার মূল কর্মস্থল রাজশাহী আরআরএফ। অসুস্থতার কারণে তিনি গেল ১৮ মে থেকে ছুটিতে রাজশাহী মহানগরীর ভাড়া বাসাতেই ছিলেন। মোশাররফ হোসেন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানতাম। তার মৃত্যুর খবরটি সম্পর্কে আমরা নিশ্চিত।

আরআরএফ রাজশাহীর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আবদুল হান্নান বলেন, খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতাল থেকে মোশাররফ হোসেনের মরদেহ সুজানগরে পাঠানোর জন্য আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। একটি বিশেষ অ্যাম্বুলেন্সে পুলিশ পাহারায় তার মরদেহ বহন করা হবে। সুজানগরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাকে দাফন করা হবে।