টাঙ্গাইলে পিআইওকে পিটিয়ে গা ডাকা দিলেন ভাইস চেয়ারম্যান

  টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ২৩ মে ২০২০, ২১:৫৩:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

নাজমুল হুদা নবীন। ফাইল ছবি

টাঙ্গাইলে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে অফিস কক্ষে ঢুকে মারধরের ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা নবীন গা ডাকা দিয়েছেন।

তাকে গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর মোশারফ হোসেন জানিয়েছেন।

এর আগে শুক্রবার দুপুরে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে অফিস কক্ষে ঢুকে মারধরের অভিযোগে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা নবীনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। শুক্রবার দুপুরে সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) একেএম মমিনুল হক বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে তার অফিসকক্ষে অবস্থানকালে ভাইস চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা ও তপু নামক তার অপর এক সহযোগীসহ আরও ৪/৫ জন ওই কক্ষে প্রবেশ করে। তারা সরকারি কাজে বাধা দিয়ে অবৈধভাবে ত্রাণের কিছু স্লিপ তাকে (পিআইও) দেন। তখন পিআইও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অনুমতি ছাড়া অবৈধভাবে ত্রাণ দিতে অস্বীকার করেন। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে অফিসের দরজা বন্ধ করে দিয়ে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ শুরু করেন।

এক পর্যায়ে তারা পিআইওকে শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি দেন। এতে তিনি জখম হন। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা ভয়ভীতি দেখিয়ে ও হুমকি দিয়ে চলে যান।

পরে পিআইও মমিনুল হক টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেন। তিনি মামলায় উল্লেখ করেন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরামর্শ করে থানায় মামলা করতে বিলম্ব হয়েছে।

তবে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, এ ঘটনার পর স্থানীয় প্রভাবশালী রাজনীতিক ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টায় নামেন। এ জন্যই মামলা দায়েরে বিলম্ব হয়।

নাজমুল হুদা নবীন টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক। এর আগে তিনি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন।

পিআইওকে মারধর করা প্রসঙ্গে নাজমুল হুদা জানান, ত্রাণের বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কিছু কথা কাটাকাটি হয়েছে। তবে মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

টাঙ্গাইল সদর থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন জানান, নাজমুল হুদা নবীনের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর তাকে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত