চীন-ভারত বিরোধে মধ্যস্থতার প্রস্তাব ট্রাম্পের 

  যুগান্তর ডেস্ক ২৮ মে ২০২০, ১৩:১৪:৫০ | অনলাইন সংস্করণ

চীন ও ভারত সীমান্তে উত্তেজনায় দুদেশের মধ্যে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
তিনি জানান, এশিয়ার এ দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে মধ্যস্থতায় যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত। বিষয়টি দুই দেশকে জানানো হয়েছে বলেও জানান ট্রাম্প। এক টুইটবার্তায় বুধবার এমনটি দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।
এর আগে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জিয়াও লিজিয়ান বেইজিংয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, চীন-ভারত সীমান্তে পরিস্থিতি স্থিতিশীল এবং নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এছাড়া আলোচনা ও পরামর্শের মাধ্যমে প্রাসঙ্গিক বিষয়গুলো যথাযথভাবে সমাধান করতে উভয়পক্ষই তাদের সম্মুখ-সামরিক ইউনিট এবং দূতাবাসের মাধ্যমে যোগাযোগ করছে বলেও জানান তিনি।
লিজিয়ান আরও জানান, উভয়পক্ষের স্বাক্ষরিত চুক্তিগুলো মেনে চলতে এবং চীন ও ভারতের সীমান্তবর্তী অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে চীন প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট করে জানালেন, চীন ও ভারতকে এক টেবিলে আনতে যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তাব দিয়েছে। এর আগে কাশ্মীর ইস্যুতেও ভারত পাকিস্তানের মধ্যস্থতার জন্য একাধিকবার প্রস্তাব দিয়েছিলেন ট্রাম্প। তবে ভারত এতে সম্মতি দেয়নি।
টাম্প টুইটে লেখেন, ‘আমরা ভারত ও চীন উভয় দেশকেই জানিয়েছি, যুক্তরাষ্ট্র তাদের এখনকার সীমান্ত বিরোধের মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত, ইচ্ছুক ও সক্ষম।’
সম্প্রতি লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখাকে কেন্দ্র করে ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে। চীন সেখানে ভারতীয় এলাকায় ঢুকে পড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ভারতের পানিসীমা ও আকাশসীমা লঙ্ঘনেরও অভিযোগ উঠছে বেইজিংয়ের বিরুদ্ধে। লাদাখ ও উত্তর সিকিমে দুই দেশই সেনা ও সমরাস্ত্রের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বাড়িয়েছে। লাদাখের কাছে বিমানঘাঁটিও তৈরি করেছে চীন। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে তিন বাহিনী প্রধানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কমান্ডারদের নিয়ে বৈঠকে মিলিত হয়েছেন ভারতের সেনাপ্রধান।
লাদাখ সীমান্তের কাছে চীনের সামরিক ঘাঁটিতে যুদ্ধবিমান নিয়ে আসার ঘটনাতেও উদ্বেগ বেড়েছে। ওই ঘাঁটিতে ব্যাপকভাবে নির্মাণকাজ চলছে। উপগ্রহের মাধ্যমে নেওয়া ছবি থেকে দেখা যাচ্ছে, চারটি যুদ্ধবিমান সেখানে রয়েছে।


 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত