করোনাকে জয় করে যা করলেন ১০৩ বছরের বৃদ্ধা!

  অনলাইন ডেস্ক ২৯ মে ২০২০, ০০:৩৪:২২ | অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বজুড়েই অনেক বয়স্ক মানুষই কোভিড-১৯ থেকে সেরে উঠছেন। এদের মধ্যে মধ্যে একশো বছর বা তার বেশি বয়সেরও অনেকেই আছেন।

তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কল্যাণে এবার যে বৃদ্ধার কাণ্ড সামনে এল তা মনে হয় আগে শোনা যায়নি। পরে তার ওই রোগ মুক্তির উদযাপন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটসের জেনি স্টেনা নামে ১০৩ বছরের এক বৃদ্ধা করোনামুক্ত হয়ে নার্সিংহোমের বেডে শুয়েই সশব্দে খুলে ফেললেন বিয়ারের বোতল।

তিন সপ্তাহ আগে জেনি স্টেনা অসুস্থ হয়ে নার্সিং হোমে ভর্তি হন। চিকিৎসকরা যখন জানান তার করোনা পজিটিভের কথা, জেনি কোভিড-১৯ কী তা বুঝতেই পারেননি। তারপর তার চিকিৎসা শুরু হয়।

করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করে তিন সপ্তাহেই সুস্থ হয়ে ওঠেন জেনি। তিনি যে নার্সিংহোমে ছিলেন সেখানে আরও ৩৩ জন ভর্তি হন করোনা নিয়ে। তাদের চিকিৎসা এখনও চলছে।

জেনিই প্রথম, যিনি এই নার্সিংহোম থেকে সুস্থ হয়ে ওঠেন, তাও আবার ১০৩ বছর বয়সে।

তবে এক সময় জেনির অবস্থার অবনতি হতে শুরু করেছিল। তখন তার পরিবারের সদস্যদের নার্সিংহোমে ডেকে পাঠানো হয়। এমনকি, শেষবার জেনির সঙ্গে দেখা করার কথাও বলা হয়। কিন্তু পরিবারের সদস্য ও চিকিৎসকদের অবাক করে সুস্থ হয়ে ওঠেন জেনি। ১৩ মে নার্সিংহোমের তরফে ঘোষণা করা হয় জেনি করোনামুক্ত।

জেনির সুস্থ হয়ে ওঠার আনন্দ উদযাপন করেন নার্সিংহোমের কর্মীরা। জেনি কী খেতে চান জানতে চাওয়া হলে নার্সিংহোম কর্মীদের জেনি বলেন, তার প্রিয় বিয়ার এনে দিতে।

তার ইচ্ছে মতো এক বোতল ঠান্ডা বিয়ার এনে দেয়া হয়। নিজেই সশব্দে সেই বোতল খুলে চুমুক দেন। সেই মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দিও হন।

পরে তা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হয়। আর এমন এক ছবি ভাইরাল হতেও সময় নেয়নি।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত