ভারতে রেলস্টেশনে মৃত মা’কে জাগাতে শিশুর ব্যর্থ চেষ্টা (ভিডিও)

  অনলাইন ডেস্ক ২৯ মে ২০২০, ১৩:১২:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতের একটি রেলস্টেশনের প্ল্যাটফর্মে মৃত মা’কে ঘুমন্ত মনে করে, তাকে জাগানোর চেষ্টা করছে অবুঝ এক শিশু- এরকম মর্মস্পর্শী একটি ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

সোমবার বিহারের মুজাফফরপুর রেলওয়ে স্টেশনে মৃত মা’কে জাগাতে তার চাদর ধরে শিশুটির টানাটানির ওই ভিডিওটি নেটিজেনদের নাড়া দিয়েছে।

কারণ ভিডিওটি দেশটিতে লকডাউনের মধ্যে বাড়ি ফেরার চেষ্টা করা পরিযায়ী শ্রমিকদের অবর্ণনীয় দুঃখ দুর্দশার সকরুণ চিত্র তুলে ধরেছে।

রাষ্ট্রীয় জনতা দলের নেতা তেজস্বী যাদবের উপদেষ্টা সঞ্জয় যাদব বুধবার টুইটারে এই ভিডিওটি শেয়ার করে কেন্দ্র ও রাজ্যে ক্ষমতাসীনদের কড়া সমালোচনা করেছেন। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

ভিডিওতে শিশুটিকে মায়ের শরীরের আশপাশে হাঁটতে ও মাকে ঢেকে রাখা চাদর নিয়ে খেলতে এবং ওই চাদর দিয়ে নিজের মাথা ঢাকার চেষ্টা করতে দেখা গেছে।

ব্যাকগ্রাউন্ডে শোনা যাচ্ছিল স্টেশনে ট্রেন আসা-যাওয়ার ঘোষণা। এসব ট্রেনে করেই বড় বড় শহর থেকে গ্রামের বাড়িতে ফিরেছে কাজ হারানো লাখ লাখ শ্রমিক।

ভিডিও শেয়ার করে টুইটটিতে সঞ্জয় বলেছে, ‘ছোট এ শিশুটি জানে না, যে চাদর নিয়ে সে খেলছে তা আসলে তার চিরঘুমে ঢলে পড়া মাকে ঢেকে রাখার কাপড়। চারদিন ট্রেনে থাকা এ মা ক্ষুধা আর তৃষ্ণায় মারা গেছেন। ট্রেনে এসব মৃত্যুর দায়ভার কার? বিরোধীদের এসব নিয়ে কথা বলা কি উচিত নয়?’

তবে পুলিশ বলছে, ভিডিওতে থাকা ৩৫ বছর বয়সী নারীটি খাবার বা পানির অভাবে মারা পড়েননি।

মুজাফফরপুর রেলওয়ে পুলিশের ডেপুটি সুপারিনটেন্ডেন্ট রমাকান্ত উপাধ্যায় জানান, বোন এবং বোনজামাইয়ের সঙ্গে ওই নারী আহমেদাবাদ থেকে মুজাফফরপুর আসার পথে হঠাৎ করেই ট্রেনে মারা যান। তাদের খাবার বা পানির সংকটে পড়তে হয়নি বলে বোনজামাই জানিয়েছেন। আহমেদাবাদে গত এক বছর ধরে ৩৫ বছর বয়সী এ নারীর ‘কিছু অসুখের’ চিকিৎসা চলছিল। তার মানসিক অবস্থাও খানিকটা অস্থিতিশীল ছিল।

মৃত্যুর প্রকৃত কারণ উদ্ঘাটনে ময়নাতদন্ত চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

দেখুন ভিডিওটি

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত