চাঁদপুরে মহাদুর্যোগেও এগিয়ে আসছে না ১৫০ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

  চাঁদপুর প্রতিনিধি ৩০ মে ২০২০, ২০:০১:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুরে অসহাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন পুলিশ সদস্যরা। ছবি: সংগৃহীত

চাঁদপুর সমাজসেবা অধিদফতর থেকে আপদকালীন ত্রাণ তৎপরতা ও দুস্থদের সহায়তা দেয়ার সুনির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিবন্ধিত হয়েছে প্রায় আড়াই শতাধিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

দুস্থ অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি রয়েছে প্রায় দেড়শ' সংগঠনের।

কিন্তু গত তিন মাসে করোনাকালে একবারের জন্যও চাঁদপুরের সে সব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ত্রাণ তৎপরতা কিংবা সামাজিক কোনো কর্মকাণ্ডে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি।

এদের মধ্যে মতলব উত্তরে ৩২টি, মতলব দক্ষিণে সমান সংখ্যক ৩২টি, হাজীগঞ্জে ১৭টি, চাঁদপুর শহরে ৫২টি, চাঁদপুর সদর উপজেলার আওতায় ১৩টি, কচুয়া উপজেলায় ৩১টি, শাহরাস্তিতে ১৮টি, ফরিদগঞ্জে ২৩টি এবং হাইমচরে ১৫টি নিবন্ধিত সংগঠন রয়েছে।

এ সব সংগঠনের হাতেগোনা কয়েকটি কার্যক্রম পরিচালনা করলেও বাকিগুলো নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করছে।

নিবন্ধিত যে সব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনার কথা তার মধ্যে রয়েছে- আঞ্জুমানে খাদেমুল ইনসান, আনোয়ারা ইসলাম সমাজকল্যাণ ট্রাস্ট, রুরাল এমড আরবান ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (রুডো), সোশ্যাল সেলফ ফর আনপ্রিভিলেজড নারকটিস এভিউজারস (শূন্য), ড্রপ ইন সেমটার, সোশ্যাল সেলফ ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন (এসএসডিএস) সৃষ্টি (একটি বহুমুখী জনকল্যাণমমূলক সংস্থা), চাঁদপুর ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (সিডিও), মেঘনাপাড় সমাজকল্যাণ সংস্থা, সচেতন (একটি সমাজ উন্নয়ন সংস্থা), অযাচক আশ্রম সেবা সংঘ, চাঁদপুর যুব কল্যাণ সংস্থা, বৈশাখী ভিলা, দক্ষিণ পাইকাস্তা ইসলামী যুব সংঘ, ত্রিপুরা জাতি সমাজ উন্নয়ন সংস্থা, ডুমুরিয়া তরুণ সংঘ, অর্গানাইজেশন ফর রুরাল ফ্রিডমস ইমপ্রুভমেন্ট (অর্পি), আশরাফপুর ইসলামী সমাজকল্যাণ পরিষদ, সেবা উন্নয়ন সংস্থা, আস্থা (আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা), শাহরাস্তি কুলসী যুব সংঘ, শাহরাস্তি, চাঁদপু, বিজয়পুর সমাজকল্যাণ সমিতি, পাথৈর ফাইভ স্টার ক্লাব, আতাকরা ফ্যামিলি ডেভেলপমেন্ট, অর্গানাইজেশন(এফিডিও), চাঁদপুর, হাজীগঞ্জ আর্দশ পাঠাগার ও সমাজকল্যাণ সংসদ, পূর্ব কাজিরগাঁও সমাজকল্যাণ সংগঠন ইত্যাদি।

এ সব সংগঠন কি কাজ করছে তা দৃশ্যমান নয়। অনেক সংগঠন নিয়ে রয়েছে নানা মুখরোচক কাহিনী।

এ ছাড়া বাকি ১৮৩ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ত্রাণ ব্যতিত আরও অনেক কার্যক্রম পরিচালনা করার কথা থাকলেও তা কতটুকু করছে তা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে সাধারণ মানুষের মাঝে।

এ দিকে নিবন্ধিত না হয়েও হাজীগঞ্জ, ফরিদগঞ্জসহ বিভিন্ন উপজেলায় বেশ কিছু সংগঠনকে তাদের ত্রাণ কার্যক্রমসহ বিভিন্ন সেবামূলক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে দেখা যাচ্ছে।

এ বিষয়ে সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) চাঁদপুরের সভাপতি অধ্যক্ষ মোশারফ হোসেন বলেন, আমাদের দেশের অধিকাংশ নামসর্বস্ব বা সাইনবোর্ড সর্বস্ব সংগঠন। তারা সরকারি অনুদানের অপেক্ষায় থাকে। অথবা অনুদান পেলে বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে চেষ্টা করে। নিজের পকেট থেকে মানুষের জন্য কাজ করার আগ্রহ নেই বললেই চলে। এমন সংগঠন থাকার চেয়ে না থাকাই ভালো।

চাঁদপুর সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক রজত শুভ্র সরকার বলেন,জেলায় ৪২টি সংস্থা ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে বলে আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে। কিন্তু বাকিগুলোরও এ সময়ে এগিয়ে আসা উচিত।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত