পদ্মায় ঝাপ দিয়ে ছিনতাইকারীদের গুলি থেকে বাঁচলেন বাসচালক

  গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি ০১ জুন ২০২০, ২৩:৪৭:৫৫ | অনলাইন সংস্করণ

দৌলতদিয়া রোবিবার দুপুরে ছিনতাইকারীদের গুলির হাত থেকে বাঁচতে ফেরি হতে পদ্মা নদীতে ঝাপ দেন মো. সোহেল (৩৯) নামের এক পরিবহন চালক। প্রায় ২ কিলোমিটার ভাটিতে মাঝ পদ্মা থেকে জেলে নৌকার সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

তিনি ঢাকার ডেমরা থানার সারুলিয়া এলাকার মো. বছির মিয়ার ছেলে। তিনি রাজধানী সুপার ডিলাক্স নামক পরিবহনের একজন চালক।

উদ্ধার হওয়া সোহেল জানান, তিনি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় বোনের বাড়ি হতে কোহিনুর পরিবহনের একটি বাসযোগে ঢাকায় ফিরছিলেন। রোববার বেলা ২টার দিকে তাদের বাসটি নদী পারের জন্য দৌলতদিয়ার ৫নং ফেরিঘাটে এসে ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানে ওঠে।

এ সময় তিনি বাস থেকে নেমে ফেরির পল্টুনের এক কোণায় এসে দাঁড়ালে তিন দিক থেকে ৩ জন ব্যক্তি তাকে ঘিরে ধরে। তারা কোমর থেকে পিস্তল বের করে তাকে গুলি করতে উদ্যত হলে তিনি কোনো কিছু না বুঝে প্রাণ বাঁচাতে নদীতে ঝাপ দেন। মুহূর্তেই তীব্র স্রোতে তাকে মাঝ নদীতে নিয়ে যায়। তবে তার সঙ্গে কারো কোনো শত্রুতা নেই এমনকি ওই ৩ ব্যক্তিকে চেনেন না বলে জানান তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় যুবক মো. জমির মণ্ডল (২৫) জানান, লোকটি নদীতে ঝাপ দেয়ার পর কাছে থাকা ফেরি আমানত শাহ ও ভাষা শহীদ বরকত নামের দুটি ফেরি তাকে তোলার চেষ্টা করে। কিন্তু তা সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় আমি নদীর তীর দিয়ে প্রায় ২ কিলোমিটার দৌড়ে গিয়ে একটি জেলে নৌকা পাই। পরে ইঞ্জিন চালিত ওই নৌকাটি নিয়ে দ্রুত মাঝ পদ্মা থেকে জেলেদের সহযোগিতায় সোহেলকে উদ্ধার করি। তিনি ছিনতাইকারীদের খপ্পরে পড়েছিলেন বলে মনে হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে দৌলতদিয়া নৌ-থানার ইনচার্জ আবদুল মুন্নাফ জানান, উদ্ধার হওয়া ব্যক্তি কাউকে চিনতে পারেননি। তবে তার বিবরণ মোতাবেক একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। আমরা তাকে বাসায় পৌঁছাতে ঢাকার একটি পরিবহনে তুলে দিয়েছি।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত