প্লাজমা দিয়ে এসেই ফের করোনা পজিটিভ চিকিৎসকের

  বরিশাল ব্যুরো ০৩ জুন ২০২০, ২২:৪৩:০২ | অনলাইন সংস্করণ

করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পর এক রোগীকে প্লাজমা দেয়ার কিছুদিন পরেই আবারো করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বরিশালের এক চিকিৎসক। বুধবার বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

আবারো করোনায় আক্রান্ত হওয়া বাবুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মুহাম্মদ শিহাব উদ্দিন বলেন, গত ১৩ এপ্রিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইমার্জেন্সি ইভিনিং ডিউটিরত অবস্থায় জানতে পারেন সেখানকার ১ জন নার্স, ১ জন পিওন ও জেনারেল ওয়ার্ডে মারামারি করে ভর্তি হওয়া এক রোগীর কোভিড-১৯ রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কিছু জটিলতার কারণে দেরি হলেও ২০ এপ্রিল আমি জানতে পারি আমার কোভিড-১৯ পজিটিভ।

তিনি বলেন, কিছুদিন পর রিপোর্ট নেগেটিভ আসে এবং ২৭ এপ্রিল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন থেকে বাসায় চলে আসি। ২০ মে আবারো কর্মস্থলে যোগদানের পর একজন মাকে বাঁচাতে প্লাজমা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেই। ২৬ মে ঢাকায় যাওয়ার পর প্লাজমা দেয়ার পর ওই দিনই বরিশালে ফিরে আসি।

ডা. মুহাম্মদ শিহাব উদ্দিন বলেন, পরে যথানিয়মে কাজ চালিয়ে যেতে যেতে অনুভব করি জ্বর-সর্দি-কাশি অর্থাৎ নিজের শরীরে করোনার উপসর্গ। যদিও প্রথমবার এ সবের কোনো লক্ষণই আমার ছিল না। তাই ৩০ মে আবার কোভিড টেস্টের জন্য নমুনা দেই যার রিপোর্ট ২ জুন পজিটিভ আসে।

তিনি বলেন, ঢাকা থেকে আসার পর কোনো লক্ষণই ছিল না জানিয়ে তিনি বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হওয়া এক রোগীকে দেখার পর থেকে কিছুটা সংশয়ে ছিলাম। কারণ উনি ঢাকা থেকে বাবুগঞ্জে এসেছিলেন। যাই হোক সুস্থ হয়ে কাজে ফিরব এই আশা নিয়েই আগের মতো নিজেকে আলাদা রেখে চিকিৎসা নিচ্ছি। সঙ্গে নিয়ম-কানুন মেনে চলার চেষ্টা করছি।

তিনি আরও বলেন, সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছি, করোনা একবার হলে আবার যে হবে না এটা ভাবার কিছু নেই। তাই সচেতনতা আর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাই এটা থেকে বাঁচার একমাত্র লক্ষণ। আর উপসর্গ থাকলে তা গোপন করা উচিত হবে না। কারণ এই থেকেই সংক্রমিত হবে আশপাশের মানুষ।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত