গৌরনদীতে মৃত গার্মেন্টস শ্রমিকের সৎকার করলেন চেয়ারম্যান

  গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি ০৩ জুন ২০২০, ২৩:২০:২৮ | অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা থেকে করোনার উপসর্গ নিয়ে গ্রামের বাড়িতে এসে মারা যাওয়া ব্যক্তির লাশ সৎকারে পরিবারের সদস্য কিংবা গ্রামের কেউ এগিয়ে আসেননি।

খবর পেয়ে বুধবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় লাশ সৎকার করেছেন বরিশালের গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া ইউপির চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক সৈকত গুহ পিকলু এবং তার করোনা প্রতিরোধ টিমের সদস্যরা।

মৃতের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলু জানান, পার্শ্ববর্তী বাটাজোর ইউনিয়নের চন্দ্রহার গ্রামের অজিত কুমার বৈদ্যের পুত্র গার্মেন্টস শ্রমিক নির্মল বৈদ্য (৪৮) করোনার উপসর্গ নিয়ে সোমবার ঢাকা থেকে সরাসরি বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ল্যাবে নমুনা দিয়ে চন্দ্রহার গ্রামের বাড়িতে আসেন। তিনি নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। বুধবার সকালে তিনি মারা যান।

করোনার উপসর্গ নিয়ে নির্মল বৈদ্যর মৃত্যুর বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। ফলে তার লাশ সৎকারে পরিবারের সদস্যসহ ওই ইউনিয়নের কেউ এগিয়ে আসেননি।

সৈকত গুহ পিকলু জানান, বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত জাহানের মাধ্যমে জানতে পেরে উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় তিনিসহ মাহিলাড়া ইউনিয়ন করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সুজিত কুমার দাস, অমল হাজারী, পলাশ মণ্ডল, গ্রাম পুলিশ জসিম বেপারী বুধবার দুপুরে লাশ সৎকার করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত জাহান বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলুসহ লাশ সৎকারে যাওয়া সব সদস্যকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম প্রদান করা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত