করোনাযুদ্ধে জয়ী হয়ে যা বললেন পাকিস্তানি ওপেনার

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৭ জুন ২০২০, ১১:৩১:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন পাকিস্তানের একসময়কার দাপুটে ওপেনার তৌফিক ওমর।

গত মাসের ২৩ তারিখে তার পরীক্ষার ফলে কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে। এ খবরে বিচলিত হয়ে পড়ে পাকিস্তানের ক্রীড়াঙ্গন।

সপ্তাহ দুয়েক পর সুখবর দিলেন তৌফিক ওমর। বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন তিনি। ফের করোনা টেস্টে ফল নেগেটিভ এসেছে তার।

করোনাযুদ্ধে জয়ী হয়ে নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন এই সাবেক পাকিস্তানি ওপেনার।

'ইন্ডিয়া টিভি'র সঙ্গে এ বিষয়ে এক সাক্ষাৎকারে তৌফিক ওমর বলেন, সবার উচিত করোনাভাইরাসকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখা। একটু অবহেলাতেই জীবন বিপন্ন হয়ে উঠতে পারে।

তিনি বলেন, আমি সবাইকে বলব, তারা যেন নিজেদের খেয়াল রাখেন এবং এই নভেল করোনাকে একটু বেশি সিরিয়াসলি নেন। তবে এতে ভয় পেয়ে মুষড়ে পড়লে চলবে না। অবশ্যই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সর্বোপরি সুরক্ষার মধ্যে থাকতে হবে সবাইকে। শরীরে রোগ প্রতিরোধ বাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে অবিরত।

তৌফিক বলেন, আক্রান্ত হওয়ার পরই আমি দুই সপ্তাহ একেবারে আলাদা ছিলাম। নিজেকে বন্ধ ঘরে আবদ্ধ করে রেখেছিলাম। এভাবেই পরিবারের বয়স্কদের কাছ থেকে দূরে ছিলাম। অদম্য ইচ্ছাকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আমার ছোট সন্তানদের থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলাম। চিকিৎসকের প্রতিটি পরামর্শ পালন করতাম। আর এভাবেই সুস্থ হয়ে উঠি।

পাকিস্তানের ক্রীড়াঙ্গনের ব্যক্তিত্বদের মধ্যে ৩৮ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারই প্রথম করোনা শনাক্ত হয়েছিলেন।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের হয়ে ২০০১ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সময়ে ২২ ওয়ানডে এবং ৪৪ টেস্ট খেলেছেন তৌফিক। সাদা পোশাকে ৭ সেঞ্চুরিতে ২৯৬৩ এবং রঙিন পোশাকে ৭ ফিফটিতে ৫০৪ রান করেছেন তিনি।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত