অচেতন নাসিম, রাখা হয়েছে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে 

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৭ জুন ২০২০, ১২:৩৫:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

কোভিড-১৯ আক্রান্ত সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তিনি এখনও অচেতন অবস্থায় রয়েছেন, রাখা হয়েছে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) ভেন্টিলেশন সাপোর্টে।

৫ জুন মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার শেষে নাসিমকে রাজধানীর শ্যামলীতে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তাকে আরও ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ করা হবে। এ ছাড়া তার চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয়েছে মেডিকেল বোর্ড।

হাসপাতালের পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান চৌধুরী জানান, সফল অস্ত্রোপচারের পর নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে মোহাম্মদ নাসিমকে। উনার অবস্থা এখনও আসলে কিছু বলা যাচ্ছে না। গত ২৪ ঘণ্টায় উনার অবস্থা খারাপও হয়নি আবার ভালো হয়েছে এটিও বলা যাবে না।

এদিকে মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা পর্যবেক্ষণ শেষে জানিয়েছেন, নাসিমের অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। কিন্তু তার অবস্থা সংকটাপন্ন।

এই হাসপাতালে তার আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসা নিশ্চিত করা হচ্ছে। মাথার ভেতরে বেশ কিছু রক্ত জমাট বেঁধে আছে। তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। তাকে আরও ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ করা হবে।

মোহাম্মদ নাসিমের ছেলে ও সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয় জানান, তার বাবা করোনা থেকে খুব দ্রুত সেরে ওঠেন। কিন্তু শুক্রবার সকালে তার বড় আকারের একটি স্ট্রোক হয়। সঙ্গে সঙ্গে অপারেশন করে জমাট বাঁধা রক্তের অধিকাংশই অপসারণ করা হয়। তার পরও তিনি এখন পর্যন্ত অত্যন্ত সংকটাপন্ন অবস্থায় আছেন। বেশি রক্তক্ষরণ হওয়ায় মাথার ভেতরে এখনও কিছু রক্ত জমাট বেঁধে আছে।

মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন দেশের প্রখ্যাত নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ।

শনিবার মেডিকেল বোর্ডের সভা শেষে তিনি বলেন, মোহাম্মদ নাসিম বহুদিন ধরেই ডায়াবেটিস রোগে ভুগছেন। ব্লাড প্রেশারও আছে। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর পর আবার ব্রেন স্ট্রোক করেছেন। সব মিলে তার অবস্থা সংকটাপন্নই।

মেডিকেল বোর্ডের অপর সদস্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক পরিস্থিতি ডিপ ক্রিটিক্যাল (গভীর সংকটাপন্ন)। ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ সময় না গেলে কিছু বলা যাচ্ছে না।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শনিবার মোহাম্মদ নাসিমের চিকিৎসায় ৫ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। এরই মধ্যে সেই বোর্ড মিটিং করে তাকে ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তিনি ভেন্টিলেটরে অচেতন অবস্থায় রয়েছেন।

এর আগে শনিবার বিকালে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানিয়েছিলেন, বোর্ড মিটিংয়ে মোহাম্মদ নাসিমকে ৭২ ঘণ্টা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বর্তমানে তিনি অচেতন অবস্থায় আছেন। তাকে আইসিইউতে ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছে।

বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকরা মোহাম্মদ নাসিমকে প্রথমে ৪৮ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রাখেন। পরে তা বাড়ানো হয়। তার শারীরিক অবস্থা এখনও স্থিতিশীল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নিচ্ছেন। তার জন্য আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আমরা দেশবাসীর কাছে দোয়া চাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ৫ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে মোহাম্মদ নাসিমের চিকিৎসায়। বোর্ডে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ ও অধ্যাপক ডা. দ্বীন মোহাম্মদ রয়েছেন।

সোমবার সকালে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি হন নাসিম। পরে রাতে তার করোনা পরীক্ষার রিপোর্টে পজিটিভ আসে। এর মধ্যে তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলেও শুক্রবার সকালে ব্রেন স্ট্রোক করেন। পরে তার অস্ত্রোপচার করা হয়।

এর আগে ওয়ান ইলেভেনের সময় কারাবন্দি অবস্থায় স্ট্রোক করেছিলেন নাসিম। এবার দ্বিতীয়বার স্ট্রোক করলেন।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত