বাড়িতে থেকেই সুস্থ হলেন শায়েস্তাগঞ্জে একমাত্র করোনা রোগী

  শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি ০৭ জুন ২০২০, ১৪:৪১:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

আবদুল ওয়াহিদ রাজা। ছবি: যুগান্তর

বাড়িতে থেকেই সুস্থ হলেন হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার একমাত্র করোনা রোগী। তিনি হলেন আবদুল ওয়াহিদ রাজা।

গত ২১ মে রাতে কলেজছাত্র আবদুল ওয়াহিদ রাজার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। ২২ মে সকালে উপজেলা প্রশাসন রাজা ও তার পরিবারের সবাইকে লকডাউন করা হয়।

এর পর বাড়ি থেকে নিয়মিত চিকিৎসা নিচ্ছিলেন রাজা। এর মধ্যে আরও দুবার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করোনা হলে নেগেটিভ আসে। সর্বশেষ ৬ জুন আবারও তার নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে। এর পর স্বাস্থ্য বিভাগ তাকে সুস্থ বলে ছাড়পত্র দেয়।

ফলে শায়েস্তাগঞ্জের একমাত্র করোনা রোগীটি সুস্থ হওয়াতে করোনা মুক্ত হলো উপজেলা।

রোববার বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলিছুর রহমান উজ্জ্বল।

করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত হওয়া সম্পর্কে রাজা জানান, নমুনায় পজিটিভ আসার পর থেকে বাড়িতে একটা রুমে একা একা ছিলেন। স্বাস্থ্য বিভাগের পরামর্শে প্রতিদিন চারবার গরম পানির গারগিল করতেন। ৪-৫ বার আদা দিয়ে চা খেয়েছেন। আর গরম পানির ভাপ নিতেন দিনে তিনবার। আর প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি জাতীয় ফল খেয়েছেন তিনি। আর এতে করেই বাড়ি থেকেই সুস্থ হয়েছেন।

রাজা আরও জানান, কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। মনে প্রচণ্ড মনোবল, সাহস আর নিয়মিত গরম পানি ব্যবহার করলে সুস্থ হয়ে উঠবেন রোগী।

এ ব্যাপারে রাজার চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা কমিউনিটি হেলথ প্রোভাইডার মো. আল আমিন ইমরান বলেন, রাজার করোনা পজিটিভ আসার পর থেকে তিনি স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশনা মোতাবেক কাজ করায় তাড়িঘড়ি সুস্থ হয়েছেন। ৬ জুন ঢাকার পিসিআর ল্যাব ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টার থেকে রাজার সর্বশেষ নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে। তাই স্বাস্থ্য বিভাগ তাকে সুস্থ ঘোষণ করেছে।

এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুমী আক্তার বলেন, নমুনা পরীক্ষা করানোর পর একাধিকবার তার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তাই তাকে স্বাস্থ্য বিভাগ সুস্থ ঘোষণা করেছে। তাদের বাড়ি থেকে লকডাউন উঠিয়ে নেয়া হয়েছে। রাজা উপজেলার মধ্যে একমাত্র করোনা পজিটিভ ছিল। তিনি সুস্থ হওয়াতে করোনামুক্ত হলো শায়েস্তাগঞ্জ।

উল্লেখ্য, গত ১৬ মে তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য সিলেট ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। ২১ মে রিপোর্টে তার করোনা পজিটিভ আসে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত