লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে দু'জনের মৃত্যু
jugantor
লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে দু'জনের মৃত্যু

  লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি  

১৯ জুন ২০২০, ২০:৩৭:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুর সদর ও রামগঞ্জ উপজেলায় করোন উপসর্গ নিয়ে ৮৫ বছরের এক বৃদ্ধ ও ৩৫ বছর বয়সী যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ৪টি বাড়ি লকডাউন করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

জানা গেছে, সদর উপজেলা হাজিরপাড়া ইউনিয়নের ইউছুফপুর গ্রামে ওই বৃদ্ধ গত কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি ও গলাব্যথায় ভুগছিলেন। দুইদিন আগে সদর হাসপাতালের চিকিৎসক করোনা পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করেন।

বৃহস্পতিবার রাতে অবস্থার অবনতি হলে তাকে নোয়াখালী হাসপাতালে নেয়া হয়। শুক্রবার সকালে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

অন্যদিকে গত দুইদিন ধরে করোনা উপসর্গে অসুস্থ থাকার পর শুক্রবার সকালে রামগঞ্জ উপজেলার দরবেশপুর ইউনিয়নে বাড়িতেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ মৃতদেহগুলো থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে।

লক্ষ্মীপুর জেলা সিভিল সার্জন আবদুল গাফ্ফার জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া বৃদ্ধ ও যুবকের মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের ও আশপাশের ৪টি বাড়ি লকডাউনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর জেলার পাঁচটি উপজেলায় এ পর্যন্ত চিকিৎসক, সাংবাদিক ও জনপ্রতিনিধিসহ ৫৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে আক্রান্ত হয়ে ২ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া ৯ জন মৃত ব্যক্তির নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত ২৫৪ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। স্বাস্থ্য বিভাগের তত্ত্বাবধানে হাসপাতাল ও হোম আইসোলেশনে ২৮৪ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গে দু'জনের মৃত্যু

 লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি 
১৯ জুন ২০২০, ০৮:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুর সদর ও রামগঞ্জ উপজেলায় করোন উপসর্গ নিয়ে ৮৫ বছরের এক বৃদ্ধ ও ৩৫ বছর বয়সী যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ৪টি বাড়ি লকডাউন করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

জানা গেছে, সদর উপজেলা হাজিরপাড়া ইউনিয়নের ইউছুফপুর গ্রামে ওই বৃদ্ধ গত কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি ও গলাব্যথায় ভুগছিলেন। দুইদিন আগে সদর হাসপাতালের চিকিৎসক করোনা পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করেন।

বৃহস্পতিবার রাতে অবস্থার অবনতি হলে তাকে নোয়াখালী হাসপাতালে নেয়া হয়। শুক্রবার সকালে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

অন্যদিকে গত দুইদিন ধরে করোনা উপসর্গে অসুস্থ থাকার পর শুক্রবার সকালে রামগঞ্জ উপজেলার দরবেশপুর ইউনিয়নে বাড়িতেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ মৃতদেহগুলো থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে।

লক্ষ্মীপুর জেলা সিভিল সার্জন আবদুল গাফ্ফার জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া বৃদ্ধ ও যুবকের মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের ও আশপাশের ৪টি বাড়ি লকডাউনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর জেলার পাঁচটি উপজেলায় এ পর্যন্ত চিকিৎসক, সাংবাদিক ও জনপ্রতিনিধিসহ ৫৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে আক্রান্ত হয়ে ২ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া ৯ জন মৃত ব্যক্তির নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত ২৫৪ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। স্বাস্থ্য বিভাগের তত্ত্বাবধানে হাসপাতাল ও হোম আইসোলেশনে ২৮৪ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস