সাড়া ফেলেছে ২০ হাজার টাকার ২২ ফুটের রকেট ঘুড়ি

  চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি ১৯ জুন ২০২০, ২২:৩৬:৩৯ | অনলাইন সংস্করণ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মহামারীতে চারদিকে বিরাজ করছে অস্থির পরিবেশ। ঠিক এমন সময় একটু মানসিক প্রশান্তির আশায় পাবনার চাটমোহরে চলছে ঘুড়ি ওড়ানোর ধুম। বিকাল হলেই শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে তরুণ-তরুণী, যুবক, বৃদ্ধসহ সব বয়সী মানুষ নেমে পড়ছেন ঘুড়ি ওড়াতে।

কেউ খোলা মাঠে, আবার কেউ বা বাড়ির ছাদে ঘুড়ি উড়িয়ে অলস সময়কে আনন্দময় করে তুলতে বাহারি রকমের ঘুড়ি ওড়াচ্ছেন। প্রতিদিন আকাশে ওড়ানো হচ্ছে নানা আকৃতির ঘুড়ি। আর রঙ-বে-রঙের আলো লাগানো ঘুড়িতে পুরো আকাশ আলোকিত হয়ে পড়ছে।

তবে শুধু শখের বশে চাটমোহর উপজেলার ডিবিগ্রাম ইউনিয়নের কাটাখালী গ্রামের রসুন ব্যবসায়ী আনিছুর রহমান নামে এক ব্যক্তি ব্যক্তিগত উদ্যোগে ২২ ফুট লম্বা ঘুড়ি বানিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন সবাইকে। এই ঘুড়ি তৈরিতে তিনি খরচ করেছেন প্রায় ২০ হাজার টাকা। আর এই ঘুড়ি উড়িয়ে রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছেন তিনি। দানবাকৃতির এই ঘুড়ি দেখতে প্রতিদিন শত শত মানুষ ভিড় করছেন ওই এলাকায়।

আনিছুর রহমান জানান, ২২ ফুট রকেট ঘুড়ি তৈরি করতে ব্যবহার করা হয় দুটি আস্ত বাঁশ, তিন কেজি পলিথিন কাগজ, ২০০ গ্রাম কট সুতা। প্রতিদিন ১০ জন মানুষের অক্লান্ত পরিশ্রমে মোট চারদিনে প্রস্তুত করেছে ঘুড়িটি। আর রকেট ঘুড়ি উড়াতে মোট ৮ কেজি দড়ি ব্যবহার করা হয়। ঘুড়ি ওড়াতে এবং দড়ি ধরে রাখতে মোট ১৬ জন মানুষের প্রয়োজন হয়। এই ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে বেশ আনন্দ হয় গ্রামের মানুষদের মাঝে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত