পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা করোনায় আক্রান্ত, হাসপাতাল পরিষ্কার রাখছে ছাত্রলীগ
jugantor
পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা করোনায় আক্রান্ত, হাসপাতাল পরিষ্কার রাখছে ছাত্রলীগ

  কুমিল্লা ব্যুরো  

৩০ জুন ২০২০, ১৯:৪৭:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার দেবিদ্বারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা করোনায় আক্রান্ত। সরকারি হাসপাতালটি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রেখে জনসাধারণের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করছে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ।

করোনায় লাশ দাফন, অসহায় কর্মহীনদের বাড়ি বাড়ি খাদ্য পৌঁছে দেয়া, কৃষকদের ধান কাটা ও বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয়ার পর এবার সরকারি হাসপাতাল পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নেমেছে জেলা ছাত্রলীগের এ টিম।

মঙ্গলবার দুপুরে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগ, বহির্বিভাগ, হাসপাতাল চত্বরসহ আশপাশের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটিয়ে এ অভিযান শুরু করা হয়।

হ্যালো ছাত্রলীগের এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাকিব হাসান। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবীর, হ্যালো ছাত্রলীগ টিমের প্রধান কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিকের নেতৃত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিল্লাল হোসাইন, নাজমুল হাসান, আনোয়ার হোসেন বাপ্পু, মো. নুরুদ্দীন, আমির হোসাইন, কামরুজ্জামান শুভ, মঞ্জুরুল ইসলাম রানা, আবদুল্লাহ আল মামুন, সুজন হালদার, প্রনব চন্দ দাস, হাফেজ তোফায়েল মাহমুদ, নাজিম উদ্দীন সরকার, মাওলানা খালেদ মাহমুদ, সাইফুল্লাহ, আলাউদ্দিন ভূইয়া, কামাল উদ্দীন, আবদুল্লাহ সাকিব, আনাছ আবদুল্লাহ প্রমুখ।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিক বলেন, করোনাকালীন সময়ে হ্যালো ছাত্রলীগ মানবিক সেবায় মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছে। দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেশ কয়েকজন পরিচ্ছন্ন কর্মী করোনা পজিটিভ হওয়ায় দীর্ঘদিন হাসপাতালটি অপরিষ্কার ছিল, হ্যালো ছাত্রলীগ পুরো হাসপাতাল এরিয়া পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতায় নেমেছে। যতদিন পরিচ্ছন্ন কর্মীরা সুস্থ না হবে ততদিন আমরা হাসপাতালটি পরিষ্কার রাখবো।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবীর বলেন, হ্যালো ছাত্রলীগ টিম পুরো হাসপাতাল পরিষ্কার করেছেন। আমি কৃতজ্ঞ তাদের প্রতি। আমি আশা করব, এভাবে তারা সব সময়ই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাশে দাঁড়াবে।

ইউএনও রাকিব হাসান বলেন, করোনাকালীন এ সময়ে ছাত্রলীগের এমন মহতী কার্যক্রম সম্পর্কে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও অবগত রয়েছেন। দেবিদ্বারের হ্যালো ছাত্রলীগ দেশের দুর্যোগকালীন সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তারা কখনও খাদ্য নিয়ে ছুটে গেছেন করোনায় কর্মহারা মানুষের বাড়ি বাড়ি, কখনও লাশ লাশ দাফন করেছেন আবার কখনও কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন। জীবনের সর্বাধিক ঝুঁকি নিয়ে তারা এ কাজগুলো করে যাচ্ছেন সফলভাবে।

তিনি বলেন, দেবিদ্বারের সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের মানবিক নির্দেশনায় তারা মানুষের সেবায় ছুটে যাচ্ছেন উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে। এমন মহতী কাজে আমি সর্বাত্মক সহযোগিতা করব এবং তাদের পাশে থাকব।

পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা করোনায় আক্রান্ত, হাসপাতাল পরিষ্কার রাখছে ছাত্রলীগ

 কুমিল্লা ব্যুরো 
৩০ জুন ২০২০, ০৭:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার দেবিদ্বারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা করোনায় আক্রান্ত। সরকারি হাসপাতালটি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রেখে জনসাধারণের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করছে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ।

করোনায় লাশ দাফন, অসহায় কর্মহীনদের বাড়ি বাড়ি খাদ্য পৌঁছে দেয়া, কৃষকদের ধান কাটা ও বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয়ার পর এবার সরকারি হাসপাতাল পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নেমেছে জেলা ছাত্রলীগের এ টিম।

মঙ্গলবার দুপুরে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগ, বহির্বিভাগ, হাসপাতাল চত্বরসহ আশপাশের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটিয়ে এ অভিযান শুরু করা হয়।

হ্যালো ছাত্রলীগের এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাকিব হাসান। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবীর, হ্যালো ছাত্রলীগ টিমের প্রধান কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিকের নেতৃত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিল্লাল হোসাইন, নাজমুল হাসান, আনোয়ার হোসেন বাপ্পু, মো. নুরুদ্দীন, আমির হোসাইন, কামরুজ্জামান শুভ, মঞ্জুরুল ইসলাম রানা, আবদুল্লাহ আল মামুন, সুজন হালদার, প্রনব চন্দ দাস, হাফেজ তোফায়েল মাহমুদ, নাজিম উদ্দীন সরকার, মাওলানা খালেদ মাহমুদ, সাইফুল্লাহ, আলাউদ্দিন ভূইয়া, কামাল উদ্দীন, আবদুল্লাহ সাকিব, আনাছ আবদুল্লাহ প্রমুখ।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিক বলেন, করোনাকালীন সময়ে হ্যালো ছাত্রলীগ মানবিক সেবায় মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছে। দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেশ কয়েকজন পরিচ্ছন্ন কর্মী করোনা পজিটিভ হওয়ায় দীর্ঘদিন হাসপাতালটি অপরিষ্কার ছিল, হ্যালো ছাত্রলীগ পুরো হাসপাতাল এরিয়া পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতায় নেমেছে। যতদিন পরিচ্ছন্ন কর্মীরা সুস্থ না হবে ততদিন আমরা হাসপাতালটি পরিষ্কার রাখবো।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবীর বলেন, হ্যালো ছাত্রলীগ টিম পুরো হাসপাতাল পরিষ্কার করেছেন। আমি কৃতজ্ঞ তাদের প্রতি। আমি আশা করব, এভাবে তারা সব সময়ই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাশে দাঁড়াবে।

ইউএনও রাকিব হাসান বলেন, করোনাকালীন এ সময়ে ছাত্রলীগের এমন মহতী কার্যক্রম সম্পর্কে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও অবগত রয়েছেন। দেবিদ্বারের হ্যালো ছাত্রলীগ দেশের দুর্যোগকালীন সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তারা কখনও খাদ্য নিয়ে ছুটে গেছেন করোনায় কর্মহারা মানুষের বাড়ি বাড়ি, কখনও লাশ লাশ দাফন করেছেন আবার কখনও কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন। জীবনের সর্বাধিক ঝুঁকি নিয়ে তারা এ কাজগুলো করে যাচ্ছেন সফলভাবে।

তিনি বলেন, দেবিদ্বারের সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের মানবিক নির্দেশনায় তারা মানুষের সেবায় ছুটে যাচ্ছেন উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে। এমন মহতী কাজে আমি সর্বাত্মক সহযোগিতা করব এবং তাদের পাশে থাকব।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস