যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ ৩০ লাখ ছাড়াল
jugantor
যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ ৩০ লাখ ছাড়াল

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ জুলাই ২০২০, ১০:৩৫:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ ৩০ লাখ ছাড়াল
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এক নির্মম মাইলফলক ছুঁয়েছে। মঙ্গলবার দেশটিতে মহামারী সংক্রমণ বেড়ে ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

এ ছাড়া বিভিন্ন রাজ্যে আক্রান্তের রেকর্ড গড়েছে। আর ফ্লোরিডায় হাসপাতালগুলোতে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটের সংকটের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত দুই সপ্তাহে অন্তত দুডজন রাজ্যে মহামারীর প্রাদুর্ভাব উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে। এতে দেশটির বড় একটি অংশজুড়ে করোনা নিয়ন্ত্রণে ট্রাম্প প্রশাসনের ব্যর্থতারই আভাস দিয়েছে।

মঙ্গলবার ক্যালিফোর্নিয়া, হাওয়াই, আইদাহো, মিসৌরি, মন্টানা, ওকলাহোমা ও টেক্সাসে সংক্রমণের আগের সব রেকর্ড ভেঙেছে।

আর সবচেয়ে বেশি প্রাদুর্ভাব দেখা গেছে টেক্সাস ও ক্যালিফোর্নিয়ায়। এই বড় রাজ্য দুটিতে গড়ে ১০ হাজারের বেশি লোক আক্রান্ত হচ্ছেন। অন্তত ২৪টি রাজ্যে সংক্রমণের হার অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে।

কেবল দুই সপ্তাহেই হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে গেছে। এতে আমেরিকানদের মধ্যে করোনা পরীক্ষার প্রবণতাও বেড়ে গেছে।

হাউসটনে দেখা গেছে, ইউনাইটেড মেমোরিয়াল মেডিকেল সেন্টারে দুই শতাধিক গাড়ি সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আছে। লোকজনকে সেখানে করোনা পরীক্ষা করতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

গাড়ি থেকে বের না হয়েই করোনা পরীক্ষা করার সুযোগ নিতে অনেকে রাতে এসেই জায়গা করে নিয়েছেন। ফ্রেড রোস নামের ৩২ বছর বয়সী এক যুবক বলেন, আমার ছোট ভাই করোনায় পজিটিভ এসেছে, তাই আমিও পরীক্ষা করতে এসেছি।

তিনি গাড়িতেই রাত কাটিয়েছেন। বলেন, এখানে প্রচুর লোক রয়েছেন, তাদের করোনা পরীক্ষা করা দরকার। এ ক্ষেত্রে কিছু করার নেই।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ ৩০ লাখ ছাড়াল

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ জুলাই ২০২০, ১০:৩৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ ৩০ লাখ ছাড়াল
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এক নির্মম মাইলফলক ছুঁয়েছে। মঙ্গলবার দেশটিতে মহামারী সংক্রমণ বেড়ে ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

এ ছাড়া বিভিন্ন রাজ্যে আক্রান্তের রেকর্ড গড়েছে। আর ফ্লোরিডায় হাসপাতালগুলোতে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটের সংকটের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত দুই সপ্তাহে অন্তত দুডজন রাজ্যে মহামারীর প্রাদুর্ভাব উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে। এতে দেশটির বড় একটি অংশজুড়ে করোনা নিয়ন্ত্রণে ট্রাম্প প্রশাসনের ব্যর্থতারই আভাস দিয়েছে।

মঙ্গলবার ক্যালিফোর্নিয়া, হাওয়াই, আইদাহো, মিসৌরি, মন্টানা, ওকলাহোমা ও টেক্সাসে সংক্রমণের আগের সব রেকর্ড ভেঙেছে।

আর সবচেয়ে বেশি প্রাদুর্ভাব দেখা গেছে টেক্সাস ও ক্যালিফোর্নিয়ায়। এই বড় রাজ্য দুটিতে গড়ে ১০ হাজারের বেশি লোক আক্রান্ত হচ্ছেন। অন্তত ২৪টি রাজ্যে সংক্রমণের হার অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে।

কেবল দুই সপ্তাহেই হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে গেছে। এতে আমেরিকানদের মধ্যে করোনা পরীক্ষার প্রবণতাও বেড়ে গেছে।

হাউসটনে দেখা গেছে, ইউনাইটেড মেমোরিয়াল মেডিকেল সেন্টারে দুই শতাধিক গাড়ি সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আছে। লোকজনকে সেখানে করোনা পরীক্ষা করতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

গাড়ি থেকে বের না হয়েই করোনা পরীক্ষা করার সুযোগ নিতে অনেকে রাতে এসেই জায়গা করে নিয়েছেন। ফ্রেড রোস নামের ৩২ বছর বয়সী এক যুবক বলেন, আমার ছোট ভাই করোনায় পজিটিভ এসেছে, তাই আমিও পরীক্ষা করতে এসেছি।

তিনি গাড়িতেই রাত কাটিয়েছেন। বলেন, এখানে প্রচুর লোক রয়েছেন, তাদের করোনা পরীক্ষা করা দরকার। এ ক্ষেত্রে কিছু করার নেই।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০