ইতালি থেকে ফেরত পাঠানো হলো ১৬৫ বাংলাদেশিকে
jugantor
ইতালি থেকে ফেরত পাঠানো হলো ১৬৫ বাংলাদেশিকে

  জমির হোসেন, ইতালি থেকে  

০৯ জুলাই ২০২০, ০১:৪৭:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

দুটি পৃথক ফ্লাইটে ইতালি থেকে ১৬৫ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণ দেখিয়ে তাদের ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ইতালির বিভিন্ন গণমাধ্যম।

ইতালিতে বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, বাণিজ্যিক নগরী মিলানোর মালপেনসা বিমানবন্দরে বুধবার স্থানীয় সময় পৌনে ১টায় কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিমান অবতরণ করে।

সেখানে ৪৩ জন বাংলাদেশি যাত্রী ছিল। কিন্তু তাদের নামার অনুমতি দেয়নি ইতালির বিমান কর্তৃপক্ষ। পরে বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে ওই যাত্রীদের নিয়ে দোহারের উদ্দেশে বিমানবন্দর ত্যাগ করে বিমানটি।

তবে মালপেনসা বিমানবন্দর থেকে ৪০ জন বাংলাদেশি যাত্রীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে ইতালির স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

এদিকে দুপুর ১টার দিকে কাতার এয়ারওয়েজের আরেকটি ফ্লাইট ১৪০ জন বাংলাদেশি যাত্রী নিয়ে ইতালির রোমে ফিউমিসিনো বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

তাদের মধ্যে ১৫ জনকে নামার অনুমতি দিলেও বাকি ১২৫ জনকে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

স্থানীয় সময় রাত ৮ টার একটু আগে একই বিমানে ফিউমিসিনো বিমানবন্দর ত্যাগ করেন তারা।

জানা গেছে, যে ১৫ জনকে নামার অনুমতি দেয়া হয়েছে তাদের মধ্যে ১৪ জন বাংলাদেশি বংশদ্ভেূাত ইতালির নাগরিক। অন্যজন অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় তাকে ফেরত পাঠানো হয়নি।

তবে বাকিবাংলাদেশি যাত্রীদের ফেরত পাঠানোর কারণ হিসেবে স্বাস্থ্যগত সমস্যা উল্লেখ করা হয়েছে ইতালিরস্থানীয় গণমাধ্যমে।

ইতালি থেকে ফেরত পাঠানো হলো ১৬৫ বাংলাদেশিকে

 জমির হোসেন, ইতালি থেকে 
০৯ জুলাই ২০২০, ০১:৪৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দুটি পৃথক ফ্লাইটে ইতালি থেকে ১৬৫ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। 

স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণ দেখিয়ে তাদের ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ইতালির বিভিন্ন গণমাধ্যম।

ইতালিতে বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, বাণিজ্যিক নগরী মিলানোর মালপেনসা বিমানবন্দরে বুধবার স্থানীয় সময় পৌনে ১টায় কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিমান অবতরণ করে। 

সেখানে ৪৩ জন বাংলাদেশি যাত্রী ছিল। কিন্তু তাদের নামার অনুমতি দেয়নি ইতালির বিমান কর্তৃপক্ষ। পরে বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে ওই যাত্রীদের নিয়ে দোহারের উদ্দেশে বিমানবন্দর ত্যাগ করে বিমানটি। 

তবে মালপেনসা বিমানবন্দর থেকে ৪০ জন বাংলাদেশি যাত্রীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে ইতালির স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। 

এদিকে দুপুর ১টার দিকে কাতার এয়ারওয়েজের আরেকটি ফ্লাইট ১৪০ জন বাংলাদেশি যাত্রী নিয়ে ইতালির রোমে ফিউমিসিনো বিমানবন্দরে অবতরণ করে। 

তাদের মধ্যে ১৫ জনকে নামার অনুমতি দিলেও বাকি ১২৫ জনকে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে। 

স্থানীয় সময় রাত ৮ টার একটু আগে একই বিমানে ফিউমিসিনো বিমানবন্দর ত্যাগ করেন তারা।

জানা গেছে, যে ১৫ জনকে নামার অনুমতি দেয়া হয়েছে তাদের মধ্যে ১৪ জন বাংলাদেশি বংশদ্ভেূাত ইতালির নাগরিক। অন্যজন অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় তাকে ফেরত পাঠানো হয়নি। 

তবে বাকি বাংলাদেশি যাত্রীদের ফেরত পাঠানোর কারণ হিসেবে স্বাস্থ্যগত সমস্যা উল্লেখ করা হয়েছে ইতালির স্থানীয় গণমাধ্যমে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস