করোনায় চাঁদপুর জেলা আ’লীগ নেতার মৃত্যু
jugantor
করোনায় চাঁদপুর জেলা আ’লীগ নেতার মৃত্যু

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

০৯ জুলাই ২০২০, ২৩:০০:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আনিছুজ্জামান চৌধুরী মারা গেছেন। এ ছাড়া করোনা উপসর্গে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি মারা যান।

বুধবার দিবাগত রাতে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আনিছুজ্জামান চৌধুরী বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন। উন্নত চিকিৎসার জন্য অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় নেয়ার পথে রাত ২টার দিকে তিনি মারা যান।

আনিছুজ্জামান চৌধুরী মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদি উত্তর ইউনিয়নের উপাদি গ্রামের বাসিন্দা। থাকতেন মতলব পৌর এলাকার কলাদি এলাকার নিজস্ব বাসায়। তার স্ত্রী ও একমাত্র সন্তান থাকেন ঢাকায়। আনিছুজ্জামানের পিতা আবদুল মান্নান চৌধুরী উপাদি উত্তর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

জানা গেছে, করোনা পরীক্ষার জন্য আনিছুজ্জামান চৌধুরী মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দিলে গত ২৭ জুন তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর তিনি উপজেলা হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

অপরদিকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ডে বৃহস্পতিবার সকালে ভর্তির ১ ঘণ্টা পর মারা যান জাহাঙ্গীর প্রধানিয়া (৪৫)।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসারও করোনা ফোকাল পার্সন ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল জানান, প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট সমস্যা নিয়ে তার স্বজনরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তাকে অক্সিজেনসহ অন্যান্য চিকিৎসাও দেয়া হয়। তার বাড়ি চাঁদপুর সদর উপজেলার বিষ্ণপুর এলাকায়।

করোনায় চাঁদপুর জেলা আ’লীগ নেতার মৃত্যু

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
০৯ জুলাই ২০২০, ১১:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আনিছুজ্জামান চৌধুরী মারা গেছেন। এ ছাড়া করোনা উপসর্গে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি মারা যান।

বুধবার দিবাগত রাতে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আনিছুজ্জামান চৌধুরী বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন। উন্নত চিকিৎসার জন্য অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় নেয়ার পথে রাত ২টার দিকে তিনি মারা যান।

আনিছুজ্জামান চৌধুরী মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদি উত্তর ইউনিয়নের উপাদি গ্রামের বাসিন্দা। থাকতেন মতলব পৌর এলাকার কলাদি এলাকার নিজস্ব বাসায়। তার স্ত্রী ও একমাত্র সন্তান থাকেন ঢাকায়। আনিছুজ্জামানের পিতা আবদুল মান্নান চৌধুরী উপাদি উত্তর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

জানা গেছে, করোনা পরীক্ষার জন্য আনিছুজ্জামান চৌধুরী মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দিলে গত ২৭ জুন তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর তিনি উপজেলা হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন।
 
অপরদিকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ডে বৃহস্পতিবার সকালে ভর্তির ১ ঘণ্টা পর মারা যান জাহাঙ্গীর প্রধানিয়া (৪৫)।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসারও করোনা ফোকাল পার্সন ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল জানান, প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট সমস্যা নিয়ে তার স্বজনরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তাকে অক্সিজেনসহ অন্যান্য চিকিৎসাও দেয়া হয়। তার বাড়ি চাঁদপুর সদর উপজেলার বিষ্ণপুর এলাকায়।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস