করোনা: বগুড়ায় ২ জনের মৃত্যু
jugantor
করোনা: বগুড়ায় ২ জনের মৃত্যু

  বগুড়া ব্যুরো  

১০ জুলাই ২০২০, ২১:১৮:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আবদুর রাজ্জাক (৫০) নামে এক ব্যক্তি মারা গেছেন। তিনি বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ২টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের আইসোলেশনে মারা যান।

কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সদস্যরা শুক্রবার সকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মরদেহ প্রস্তুত, জানাজা ও সাবগ্রামে পরিবারিক গোরস্থানে দাফন করেছেন।

এ দিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে মো. রঞ্জু (৪৫) নামে এক কাঠমিস্ত্রি মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার রাত ৩টা ৪০ মিনিটে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে তিনি মারা যান।

শুক্রবার সকালে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সদস্যরা তার মরদেহ প্রস্তুত ও জানাজা শেষে সিরাজগঞ্জ বা ধুনটের বাড়িতে দাফনের জন্য পরিবারকে দিয়েছেন।

বগুড়া শজিমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আবদুল ওয়াদুদ জানান, বগুড়া সদরের আকাশতারা এলাকায় আবদুর রাজ্জাক সাতমাথা স্যানিটারি ও টাইলসের ম্যানেজার ছিলেন। আবদুর রাজ্জাক করোনা উপসর্গে আক্রান্ত হলে টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতউল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল ল্যাবে নমুনা দেন।
গত ৮ জুলাই ফলাফলে তাকে করোনা আক্রান্ত উল্লেখ করা হয়। বেশি অসুস্থ হলে বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে তাকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতাল আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সোয়া ২টার দিকে তিনি মারা যান।

এ ছাড়া পেশায় কাঠমিস্ত্রি রঞ্জু সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার চালাভরা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি বগুড়ার ধুনট উপজেলার মাধবডাঙ্গা গ্রামে বসবাস করতেন। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় বগুড়া শজিমেক আইসোলেশনে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩টা ৪০ মিনিটে তিনি মারা যান।

করোনা: বগুড়ায় ২ জনের মৃত্যু

 বগুড়া ব্যুরো 
১০ জুলাই ২০২০, ০৯:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আবদুর রাজ্জাক (৫০) নামে এক ব্যক্তি মারা গেছেন। তিনি বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ২টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের আইসোলেশনে মারা যান। 

কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সদস্যরা শুক্রবার সকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মরদেহ প্রস্তুত, জানাজা ও সাবগ্রামে পরিবারিক গোরস্থানে দাফন করেছেন।

এ দিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে মো. রঞ্জু (৪৫) নামে এক কাঠমিস্ত্রি মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার রাত ৩টা ৪০ মিনিটে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে তিনি মারা যান। 

শুক্রবার সকালে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সদস্যরা তার মরদেহ প্রস্তুত ও জানাজা শেষে সিরাজগঞ্জ বা ধুনটের বাড়িতে দাফনের জন্য পরিবারকে দিয়েছেন।

বগুড়া শজিমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আবদুল ওয়াদুদ জানান, বগুড়া সদরের আকাশতারা এলাকায় আবদুর রাজ্জাক সাতমাথা স্যানিটারি ও টাইলসের ম্যানেজার ছিলেন। আবদুর রাজ্জাক করোনা উপসর্গে আক্রান্ত হলে টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতউল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল ল্যাবে নমুনা দেন। 
গত ৮ জুলাই ফলাফলে তাকে করোনা আক্রান্ত উল্লেখ করা হয়। বেশি অসুস্থ হলে বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে তাকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতাল আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সোয়া ২টার দিকে তিনি মারা যান। 

এ ছাড়া পেশায় কাঠমিস্ত্রি রঞ্জু সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার চালাভরা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি বগুড়ার ধুনট উপজেলার মাধবডাঙ্গা গ্রামে বসবাস করতেন। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় বগুড়া শজিমেক আইসোলেশনে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩টা ৪০ মিনিটে তিনি মারা যান। 
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস