বগুড়ায় আরও ৫৭ জনের করোনা শনাক্ত
jugantor
বগুড়ায় আরও ৫৭ জনের করোনা শনাক্ত

  বগুড়া ব্যুরো  

১০ জুলাই ২০২০, ২১:২১:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ নারী ও ৩ শিশুসহ ৫৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ সময় ১ জনসহ মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৬৬ জন।

মোট করোনা আক্রান্ত হলেন ৩ হাজার ৬০৮ জন। ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এ তথ্য দিয়েছেন।

সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল পিসিআর ল্যাবে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ২২ জনের নমুনা পজিটিভ হয়।

টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতউল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল ল্যাবে ৮৮ জনের মধ্যে ৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৫৭ জন করোনা আক্রান্ত হলেন।

এর মধ্যে সদরে ৩৫ জন, শেরপুরে ৮ জন, শাজাহানপুর ও শিবগঞ্জে ৩ জন করে, কাহালুতে ২ জন এবং আদমদীঘি, সারিয়াকান্দি, দুপচাঁচিয়া ও সোনাতলায় ১ জন করে।

সূত্রটি আরও জানায়, জেলায় মোট আক্রান্ত ৩ হাজার ৬০৮ জনের মধ্যে সদরে ২ হাজার ৪৯১ জন, শাজাহানপুরে ১৯১ জন, গাবতলীতে ১৮৮ জন, শেরপুরে ১৭২ জন, শিবগঞ্জে ৯৩ জন, কাহালুতে ৮৬ জন, সারিয়াকান্দিতে ৮৩ জন, দুপচাঁচিয়ায় ৭৭ জন, সোনাতলায় ৭৫ জন, ধুনটে ৭১ জন, নন্দীগ্রামে ৪১ জন ও আদমদীঘিতে ৩৮ জন।

সদরে আক্রান্ত ঠেকাতে পৌরসভার নয়টি এলাকা রেডজোন ঘোষণা করে লকডাউন করা হয়েছে। প্রথমে গত ২১ জুন থেকে ৫ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন ছিল। ৫ জুলাই নতুন করে লকডাউন ২১ জুলাই পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৯২ জন সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৬১৭ জন। করোনাভাইরাসে মারা গেছেন ৬৬ জন। হাসপাতালের আইসোলেশন ও বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১ হাজার ৯২৫ জন।

তিনি আরও জানান, পৌর এলাকায় লকডাউন দেয়ায় আক্রান্তের হার কমছে ও সুস্থতা বাড়ছে।

বগুড়ায় আরও ৫৭ জনের করোনা শনাক্ত

 বগুড়া ব্যুরো 
১০ জুলাই ২০২০, ০৯:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ নারী ও ৩ শিশুসহ ৫৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ সময় ১ জনসহ মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৬৬ জন। 

মোট করোনা আক্রান্ত হলেন ৩ হাজার ৬০৮ জন। ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এ তথ্য দিয়েছেন। 

সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল পিসিআর ল্যাবে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ২২ জনের নমুনা পজিটিভ হয়। 

টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতউল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল ল্যাবে ৮৮ জনের মধ্যে ৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৫৭ জন করোনা আক্রান্ত হলেন। 

এর মধ্যে সদরে ৩৫ জন, শেরপুরে ৮ জন, শাজাহানপুর ও শিবগঞ্জে ৩ জন করে, কাহালুতে ২ জন এবং আদমদীঘি, সারিয়াকান্দি, দুপচাঁচিয়া ও সোনাতলায় ১ জন করে।

সূত্রটি আরও জানায়, জেলায় মোট আক্রান্ত ৩ হাজার ৬০৮ জনের মধ্যে সদরে ২ হাজার ৪৯১ জন, শাজাহানপুরে ১৯১ জন, গাবতলীতে ১৮৮ জন, শেরপুরে ১৭২ জন, শিবগঞ্জে ৯৩ জন, কাহালুতে ৮৬ জন, সারিয়াকান্দিতে ৮৩ জন, দুপচাঁচিয়ায় ৭৭ জন, সোনাতলায় ৭৫ জন, ধুনটে ৭১ জন, নন্দীগ্রামে ৪১ জন ও আদমদীঘিতে ৩৮ জন। 

সদরে আক্রান্ত ঠেকাতে পৌরসভার নয়টি এলাকা রেডজোন ঘোষণা করে লকডাউন করা হয়েছে। প্রথমে গত ২১ জুন থেকে ৫ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন ছিল। ৫ জুলাই নতুন করে লকডাউন ২১ জুলাই পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৯২ জন সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৬১৭ জন। করোনাভাইরাসে মারা গেছেন ৬৬ জন। হাসপাতালের আইসোলেশন ও বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১ হাজার ৯২৫ জন। 

তিনি আরও জানান, পৌর এলাকায় লকডাউন দেয়ায় আক্রান্তের হার কমছে ও সুস্থতা বাড়ছে।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস