করোনায় মৃত ব্যক্তির ভাঙা কবর সংস্কার করল ‘হ্যালো ছাত্রলীগ’
jugantor
করোনায় মৃত ব্যক্তির ভাঙা কবর সংস্কার করল ‘হ্যালো ছাত্রলীগ’

  কুমিল্লা ব্যুরো  

২৫ জুলাই ২০২০, ১৪:৫৭:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনায় মৃত ব্যক্তির ভাঙা কবর সংস্কার করল ‘হ্যালো ছাত্রলীগ’
ছবি: যুগান্তর

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় করোনাভাইরাসে মৃত ব্যক্তির কবর সংস্কার করল হ্যালো ছাত্রলীগ।

শুক্র ও শনিবার টানা দুদিন কাজ করে করোনায় মৃত ব্যক্তিসহ আশপাশের ভাঙা কবরগুলো সংস্কার করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার শাকতলা গ্রামের প্রফেসর ফরহাদ উদ্দিন ভূইয়ার ছেলে আরিফ ভূইয়া গত মাসে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। সে সময় স্থানীয়রা তাকে দাফনে এগিয়ে না এলেও কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিকের নেতৃত্বে হ্যালো ছাত্রলীগ টিম তার দাফন সম্পন্ন করে।

সম্প্রতি টানা বৃষ্টির কারণে ওই ব্যক্তির কবরটি ভেঙে যায়। এ সময় মৃত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে ফের হ্যালো ছাত্রলীগের হট নাম্বারে ফোন করা হয়। এতে শুক্র ও শনিবার টানা দুদিন কাজ করে ওই মৃত ব্যক্তিসহ আশপাশের ভাঙা কবরগুলো সংস্কার করে দেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

জানা যায়, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর কুমিল্লায় এ ছাত্র সংগঠনের সভাপতি আবু কাউছার অনিকের নেতৃত্বে ৪১ জনের একটি দল গঠন করা হয়। এরপর থেকে টানা দাফনের কাজ করে যাচ্ছে ছাত্রলীগের এই দল।

এ ব্যাপারে কুমিল্লার উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু মো. কাউছার অনিক জানান, আমাদের হ্যালো ছাত্রলীগের হট লাইনে শাকতলা গ্রামের প্রফেসর ফরহাদ উদ্দিন ভুইয়া একাধিকবার ফোন করে তার ছেলের ভেঙে যাওয়া কবর সংস্কারের জন্য অনেক অনুরোধ করেন।

এরপর ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি সম্পন্ন কবর ভেঙে পড়েছে এবং বৃষ্টির পানিতে পূর্ণ। অনেক কষ্টে পানি সরিয়ে কবর সংস্কার করে দিয়েছি।

করোনায় মৃত ব্যক্তির ভাঙা কবর সংস্কার করল ‘হ্যালো ছাত্রলীগ’

 কুমিল্লা ব্যুরো 
২৫ জুলাই ২০২০, ০২:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনায় মৃত ব্যক্তির ভাঙা কবর সংস্কার করল ‘হ্যালো ছাত্রলীগ’
ছবি: যুগান্তর

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় করোনাভাইরাসে মৃত ব্যক্তির কবর সংস্কার করল হ্যালো ছাত্রলীগ।

শুক্র ও শনিবার টানা দুদিন কাজ করে করোনায় মৃত ব্যক্তিসহ আশপাশের ভাঙা কবরগুলো সংস্কার করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার শাকতলা গ্রামের প্রফেসর ফরহাদ উদ্দিন ভূইয়ার ছেলে আরিফ ভূইয়া গত মাসে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। সে সময় স্থানীয়রা তাকে দাফনে এগিয়ে না এলেও কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিকের নেতৃত্বে হ্যালো ছাত্রলীগ টিম তার দাফন সম্পন্ন করে।

সম্প্রতি টানা বৃষ্টির কারণে ওই ব্যক্তির কবরটি ভেঙে যায়। এ সময় মৃত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে ফের হ্যালো ছাত্রলীগের হট নাম্বারে ফোন করা হয়। এতে শুক্র ও শনিবার টানা দুদিন কাজ করে ওই মৃত ব্যক্তিসহ আশপাশের ভাঙা কবরগুলো সংস্কার করে দেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

জানা যায়, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর কুমিল্লায় এ ছাত্র সংগঠনের সভাপতি আবু কাউছার অনিকের নেতৃত্বে ৪১ জনের একটি দল গঠন করা হয়। এরপর থেকে টানা দাফনের কাজ করে যাচ্ছে ছাত্রলীগের এই দল।

এ ব্যাপারে কুমিল্লার উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু মো. কাউছার অনিক জানান, আমাদের হ্যালো ছাত্রলীগের হট লাইনে শাকতলা গ্রামের প্রফেসর ফরহাদ উদ্দিন ভুইয়া একাধিকবার ফোন করে তার ছেলের ভেঙে যাওয়া কবর সংস্কারের জন্য অনেক অনুরোধ করেন।

এরপর ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি সম্পন্ন কবর ভেঙে পড়েছে এবং বৃষ্টির পানিতে পূর্ণ। অনেক কষ্টে পানি সরিয়ে কবর সংস্কার করে দিয়েছি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস