বিরামপুর পৌর মেয়র করোনায় আক্রান্ত
jugantor
বিরামপুর পৌর মেয়র করোনায় আক্রান্ত

  বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি  

২৯ জুলাই ২০২০, ১২:০৯:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

লিয়াকত আলী সরকার টুটুল
ফাইল ছবি

দিনাজপুরের বিরামপুর পৌরসভার মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলেমান হোসেন মেহেদী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলেমান হোসেন মেহেদী যুগান্তরকে জানান, বিরামপুরে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭৯৩ জনের। এতে করোনা পজিটিভ হয়েছে ১৭৩ জন, সুস্থ হয়েছেন ১০৪, অস্থায়ী হাসপাতালে (মুক্তিযোদ্ধা ভবনে) আছেন সাতজন, বাকিরা নিজ নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন।
 
তিনি আরও জানান, বিরামপুর পৌর মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুলের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পাওয়া যায়। এ  নিয়ে পৌর মেয়রের পরিবারের ২২ সদস্যের মধ্যে ১৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বাকি সদস্যদের রিপোর্ট এখনও পাওয়া যায়নি।

বিরামপুর মহিলা কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আবদুস সালাম যুগান্তরকে বলেন, এই করোনা মহামারী শুরু থেকেই প্রথম সারিতে থেকে কাজ করে যাচ্ছিলেন মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল। তিনি করোনাকালে লকডাইনে পৌরসভার খেটে খাওয়া মানুষের বাড়ি  বাড়ি গিয়ে খাবার ও ত্রাণসামগ্রী পৌঁচ্ছে দিয়েছেন এবং এখনও দিচ্ছেন।

বিরামপুর পৌর মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল বলেন, আমি  জনগণের সঙ্গে কাজ করি। এ জন্যই কোনো না কোনোভাবে আক্রান্ত হয়েছি।

জনসাধারণের সঙ্গে আছি এবং থাকব। আমার পরিবারে ২২ সদস্যের মধ্যে ১৬ জনই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাই পৌরসভায় অফিস না করে নিজ বাড়িতে অবস্থান করছি।

বিরামপুর পৌর মেয়র করোনায় আক্রান্ত

 বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি 
২৯ জুলাই ২০২০, ১২:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
লিয়াকত আলী সরকার টুটুল
ফাইল ছবি

দিনাজপুরের বিরামপুর পৌরসভার মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলেমান হোসেন মেহেদী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলেমান হোসেন মেহেদী যুগান্তরকে জানান, বিরামপুরে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭৯৩ জনের। এতে করোনা পজিটিভ হয়েছে ১৭৩ জন, সুস্থ হয়েছেন ১০৪, অস্থায়ী হাসপাতালে (মুক্তিযোদ্ধা ভবনে) আছেন সাতজন, বাকিরা নিজ নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন।

তিনি আরও জানান, বিরামপুর পৌর মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুলের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পাওয়া যায়। এ নিয়ে পৌর মেয়রের পরিবারের ২২ সদস্যের মধ্যে ১৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বাকি সদস্যদের রিপোর্ট এখনও পাওয়া যায়নি।

বিরামপুর মহিলা কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আবদুস সালাম যুগান্তরকে বলেন, এই করোনা মহামারী শুরু থেকেই প্রথম সারিতে থেকে কাজ করে যাচ্ছিলেন মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল। তিনি করোনাকালে লকডাইনে পৌরসভার খেটে খাওয়া মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাবার ও ত্রাণসামগ্রী পৌঁচ্ছে দিয়েছেন এবং এখনও দিচ্ছেন।

বিরামপুর পৌর মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল বলেন, আমি জনগণের সঙ্গে কাজ করি। এ জন্যই কোনো না কোনোভাবে আক্রান্ত হয়েছি।

জনসাধারণের সঙ্গে আছি এবং থাকব। আমার পরিবারে ২২ সদস্যের মধ্যে ১৬ জনই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাই পৌরসভায় অফিস না করে নিজ বাড়িতে অবস্থান করছি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস