ঋণ পুনর্গঠনে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে কাজ করছে সরকার: ভারতীয় অর্থমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক ৩১ জুলাই ২০২০, ২১:৩৭:২১ | অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন(বাঁয়ে) ও রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া(আরবিআই)। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস মহামারীর অভিঘাত কাটিয়ে উঠতে শিল্প-কারখানার প্রয়োজনে ঋণ পুনর্গঠনে রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার(আরবিআই) সঙ্গে কাজ করছে ভারতীয় সরকার।

শুক্রবার ভারতীয় শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের(এফআইসিসিআই) জাতীয় নির্বাহী কমিটির সঙ্গে বৈঠকে দেয়া বক্তৃতায় দেশটির অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এমন তথ্যও দিয়েছেন।-খবর এএনআই

তিনি জানান, মূলত ঋণ পুনর্গঠনের দিকেই আমরা আলোকপাত করছি। অর্থ মন্ত্রণালয় আরবিআইয়ের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে এ নিয়ে কাজ করছে। সাধারণত পুনর্গঠনের এই ধারণা দক্ষতার সঙ্গে কার্যকর করা দরকার।

‘যাতে কোনো পদক্ষেপ ব্যর্থ না হয়, তা নিশ্চিত করতে অংশীদার ও সরকারের মধ্যে পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনার পরেই সিদ্ধান্তগুলো নেয়া হয়েছে। কারণ আমরা চাই না যে কোনো পারিপার্শ্বিক পরিবর্তনের প্রয়োজন পড়ুক। মাঠপর্যায়ের অভিঘাত বিবেচনায় নিয়েই এসব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।’

সরকার ঘোষিত জরুরি ঋণ নিশ্চয়তা প্রকল্পের অধীন অতি ক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি পর্যায়ের শিল্প খাত(এমএসএমই) যে সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে, এফআইসিসিআই তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এমএসএমই খাতে ঋণ দিতে কোনো ব্যাংক অস্বীকার করতে পারবে না। যদি প্রত্যাখ্যান করা হয়, তবে অবশ্যই তার রিপোর্ট করতে হবে। আমি তদন্ত করে দেখবো।

উন্নয়ন অর্থ ইনস্টিটিউশনের কাজ চলছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এটা কী ধরনের আকার নেয়, শিগগিরই তা আমরা জানতে পারবো।

এ সময় বাণিজ্য চুক্তির ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতার প্রতি জোর দেন তিনি।

সীতারামন বলেন, যেসব দেশের জন্য আমাদের বাজার উন্মুক্ত করেছি, তাদের সঙ্গে পারস্পরিক সহযোগিতামূলক চুক্তি করতে বলা হয়েছে। বাণিজ্য আলোচনার ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

স্বাস্থ্যখাতের পণ্য ও সেবা কর(জিএসটি) কমানোর সিদ্ধান্ত জিএসটি কাউন্সিল নেবে বলেও জানান এই ভারতীয় অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আতিথেয়তা খাতের ঋণ পুনর্গঠন কিংবা স্থগিতের সময় বাড়ানো দরকার বলে আমি মনে করি। এ বিষয়ে আরবিআইয়ের সঙ্গে কাজ করবে অর্থ মন্ত্রণালয়।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের সক্রিয় চেষ্টার প্রশংসা করেছেন এফআইসিসির সভাপতি সঙ্গীতা রেড্ডি।

তিনি বলেন, করোনা মহামারীর মধ্যেও অর্থনৈতিক অগ্রগতি লক্ষ করা যাচ্ছে। এই উন্নতি টিকিয়ে রাখতে সরকারের সহায়তা অব্যাহত রাখতে হবে। বিশেষ করে বাজারর চাহিদা বাড়াতে এই সহায়তা বেশি দরকার।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত