করোনা নিয়ে ট্রাম্পের ‘বিতর্কিত’ পোস্ট সরাল ফেসবুক-টুইটার
jugantor
করোনা নিয়ে ট্রাম্পের ‘বিতর্কিত’ পোস্ট সরাল ফেসবুক-টুইটার

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৬ আগস্ট ২০২০, ১৩:৩৬:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনা নিয়ে ট্রাম্পের ‘বিতর্কিত’ পোস্ট সরাল ফেসবুক-টুইটার
ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফাইল ছবি

কোভিড-১৯ নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এক বিতর্কিত পোস্ট মুছে দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও টুইটার। 

এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পোস্ট মুছে দিল ফেসবুক।

পোস্ট মুছে দিয়ে ফেসবুক বলছে, ট্রাম্পের পোস্ট তাদের করোনাভাইরাস সম্পর্কিত ভুল তথ্যবিষয়ক নীতিমালা লঙ্ঘন করেছে। ওই পোস্টের সঙ্গে একটি ভিডিও ক্লিপও ছিল যাতে ‘শিশুরা কোভিড-১৯ থেকে প্রায় নিরাপদ’-  ট্রাম্প এমন দাবি করেছেন বলে উঠে এসেছে রয়টার্সের প্রতিবেদনে। 
ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে,ভিডিওটিতে ট্রাম্পের ভুল দাবি ছিল যে, একদল মানুষ কোভিড-১৯ থেকে নিরাপদ, এটি কোভিড বিষয়ে ক্ষতিকর ভুল তথ্য সম্পর্কিত ফেসবুক নীতিমালার লঙ্ঘন।

একই পোস্ট শেয়ার হয়েছিল টুইটারেও। ট্রাম্প নির্বাচনী শিবিরের ‘টিম ট্রাম্প’ অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট হয়েছিল ক্লিপটি। পরে ভিডিওটি আড়াল করে দিয়েছে টুইটার। কারণ, ওই প্ল্যাটফর্মেও কোভিড-১৯ ভুল তথ্যের নিয়ম ভেঙেছে পোস্টটি।

টুইটারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ফের কোনো টুইট করার আগে ট্রাম্পের ওই টুইটটি মুছতে হবে টিম ট্রাম্পকে।

ফক্স অ্যান্ড ফ্রেন্ডসকে দেয়া সাক্ষাতকারের একটি ভিডিও ওই পোস্টে ছিল। সেখানে ট্রাম্প দাবি করেন, শিশুরা অনেকটা কোভিড-১৯ প্রতিরোধী।

ট্রাম্পের এই দাবির সঙ্গেও একমত নন মার্কিন বিশেষজ্ঞরা। তারা জানান, শিশুদেরও আক্রান্ত করছে করোনা।

এদিকে ট্রাম্প শিবির সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগ তুলেছে। ট্রাম্প সত্যি বলেছেন বলেও দাবি করেছেন তারা। ট্রাম্প নির্বাচনী শিবিরের মুখপাত্র কোর্টনি প্যারেলা বলেছেন, সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলো সত্য-মিথ্যার বিচারক নন।

জনস্বাস্থ্য বিষয়ে মার্কিন শীর্ষ প্রতিষ্ঠান সেন্টারস ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত অধিকাংশ কোভিড-১৯ সমস্যা প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যেই দেখা গেছে। কিছু সংখ্যক শিশু ও নবজাতক এতে আক্রান্ত হয়েছে এবং তারা অন্যকে সংক্রমিত করতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুসারে, ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাইয়ের ১২ তারিখ পর্যন্ত বিশ্বে ৬০ লাখ আক্রান্ত হয়েছেন, এদের মধ্যে ৪ দশমিক ৬ শতাংশ ৫-১৪ বছর বয়সী শিশু।

পোস্ট মুছে দেয়া নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্যের অনুরোধে সাড়া দেয়নি হোয়াইট হাউস। তবে, হোয়াইট হাউসে এক ব্রিফিং চলাকালে একই দাবি ফের করেছেন ট্রাম্প।

করোনা নিয়ে ট্রাম্পের ‘বিতর্কিত’ পোস্ট সরাল ফেসবুক-টুইটার

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৬ আগস্ট ২০২০, ০১:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনা নিয়ে ট্রাম্পের ‘বিতর্কিত’ পোস্ট সরাল ফেসবুক-টুইটার
ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফাইল ছবি

কোভিড-১৯ নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এক বিতর্কিত পোস্ট মুছে দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও টুইটার।

এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পোস্ট মুছে দিল ফেসবুক।

পোস্ট মুছে দিয়ে ফেসবুক বলছে, ট্রাম্পের পোস্ট তাদের করোনাভাইরাস সম্পর্কিত ভুল তথ্যবিষয়ক নীতিমালা লঙ্ঘন করেছে। ওই পোস্টের সঙ্গে একটি ভিডিও ক্লিপও ছিল যাতে ‘শিশুরা কোভিড-১৯ থেকে প্রায় নিরাপদ’- ট্রাম্প এমন দাবি করেছেন বলে উঠে এসেছে রয়টার্সের প্রতিবেদনে।
ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে,ভিডিওটিতে ট্রাম্পের ভুল দাবি ছিল যে, একদল মানুষ কোভিড-১৯ থেকে নিরাপদ, এটি কোভিড বিষয়ে ক্ষতিকর ভুল তথ্য সম্পর্কিত ফেসবুক নীতিমালার লঙ্ঘন।

একই পোস্ট শেয়ার হয়েছিল টুইটারেও। ট্রাম্প নির্বাচনী শিবিরের ‘টিম ট্রাম্প’ অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট হয়েছিল ক্লিপটি। পরে ভিডিওটি আড়াল করে দিয়েছে টুইটার। কারণ, ওই প্ল্যাটফর্মেও কোভিড-১৯ ভুল তথ্যের নিয়ম ভেঙেছে পোস্টটি।

টুইটারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ফের কোনো টুইট করার আগে ট্রাম্পের ওই টুইটটি মুছতে হবে টিম ট্রাম্পকে।

ফক্স অ্যান্ড ফ্রেন্ডসকে দেয়া সাক্ষাতকারের একটি ভিডিও ওই পোস্টে ছিল। সেখানে ট্রাম্প দাবি করেন, শিশুরা অনেকটা কোভিড-১৯ প্রতিরোধী।

ট্রাম্পের এই দাবির সঙ্গেও একমত নন মার্কিন বিশেষজ্ঞরা। তারা জানান, শিশুদেরও আক্রান্ত করছে করোনা।

এদিকে ট্রাম্প শিবির সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগ তুলেছে। ট্রাম্প সত্যি বলেছেন বলেও দাবি করেছেন তারা। ট্রাম্প নির্বাচনী শিবিরের মুখপাত্র কোর্টনি প্যারেলা বলেছেন, সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলো সত্য-মিথ্যার বিচারক নন।

জনস্বাস্থ্য বিষয়ে মার্কিন শীর্ষ প্রতিষ্ঠান সেন্টারস ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত অধিকাংশ কোভিড-১৯ সমস্যা প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যেই দেখা গেছে। কিছু সংখ্যক শিশু ও নবজাতক এতে আক্রান্ত হয়েছে এবং তারা অন্যকে সংক্রমিত করতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুসারে, ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাইয়ের ১২ তারিখ পর্যন্ত বিশ্বে ৬০ লাখ আক্রান্ত হয়েছেন, এদের মধ্যে ৪ দশমিক ৬ শতাংশ ৫-১৪ বছর বয়সী শিশু।

পোস্ট মুছে দেয়া নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্যের অনুরোধে সাড়া দেয়নি হোয়াইট হাউস। তবে, হোয়াইট হাউসে এক ব্রিফিং চলাকালে একই দাবি ফের করেছেন ট্রাম্প।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস