ওহাইয়ো গভর্নরের করোনা পজিটিভ আসার কয়েক ঘণ্টা পরেই নেগেটিভ!
jugantor
ওহাইয়ো গভর্নরের করোনা পজিটিভ আসার কয়েক ঘণ্টা পরেই নেগেটিভ!

  অনলাইন ডেস্ক  

০৭ আগস্ট ২০২০, ১৩:০৭:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

ওহাইয়ো গভর্নরের করোনা পজিটিভ আসার কয়েক ঘণ্টা পরেই নেগেটিভ!
ছবি: সংগৃহীত

ওহাইয়োর গভর্নর মাইক ডিওয়াইনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার তিনি নিজেই ঘোষণা দিয়েছিলেন। এতে ক্লেভল্যান্ডে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার বৈঠকও বাতিল করা হয়েছে।

কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পর তিনি বলেন, দ্বিতীয় পরীক্ষায় তার কোভিড-১৯ রোগ নেগেটিভ এসেছে।

৭৩ বছর বয়সী এ রিপাবলিকান গভর্নর বলেন, ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করার সময়সূচিকে সামনে রেখে নিরাপত্তা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আমার করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

টুইটারে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গভর্নরের করোনার কোনো লক্ষণ ছিল না। কিন্তু আগামী ১৪ দিন বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য তিনি ওহাইয়োর রাজধানী কলোম্বাসে চলে যান।

ওহাইয়োর লেফটেন্যান্ট গভর্নর জন হাস্টেডেরও করোনা পরীক্ষা হয়েছে, যার ফল নেগেটিভ এসেছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ডিওয়াইন বলেন, পরবর্তী পরীক্ষায় আমার স্বাস্থ্য নিয়ে সুখবর দিয়েছেন চিকিৎসক। অর্থাৎ কোভিড-১৯ রোগের দ্বিতীয় পরীক্ষায় আমার নেগেটিভ এসেছে। এ ছাড়া ফার্স্ট লেডি ফ্রান ডিওয়াইন ও অন্যান্য কর্মকর্তারও করোনা শনাক্ত হয়নি। সব শুভাকাঙ্ক্ষীকে ধন্যবাদ।

হোয়াইট হাউসের প্রধান কর্মকর্তা মার্ক মিডোস বলেন, তার করোনা পজিটিভ আসার পর ট্রাম্পকে শুভেচ্ছা জানাতে বিকল্প ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ওয়াইওতো ট্রাম্পের ভ্রমণ পরিকল্পনায় বড় কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি।

ওহাইয়ো গভর্নরের করোনা পজিটিভ আসার কয়েক ঘণ্টা পরেই নেগেটিভ!

 অনলাইন ডেস্ক 
০৭ আগস্ট ২০২০, ০১:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ওহাইয়ো গভর্নরের করোনা পজিটিভ আসার কয়েক ঘণ্টা পরেই নেগেটিভ!
ছবি: সংগৃহীত

ওহাইয়োর গভর্নর মাইক ডিওয়াইনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার তিনি নিজেই ঘোষণা দিয়েছিলেন। এতে ক্লেভল্যান্ডে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার বৈঠকও বাতিল করা হয়েছে।

কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পর তিনি বলেন, দ্বিতীয় পরীক্ষায় তার কোভিড-১৯ রোগ নেগেটিভ এসেছে।

৭৩ বছর বয়সী এ রিপাবলিকান গভর্নর বলেন, ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করার সময়সূচিকে সামনে রেখে নিরাপত্তা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আমার করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

টুইটারে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গভর্নরের করোনার কোনো লক্ষণ ছিল না। কিন্তু আগামী ১৪ দিন বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য তিনি ওহাইয়োর রাজধানী কলোম্বাসে চলে যান।

ওহাইয়োর লেফটেন্যান্ট গভর্নর জন হাস্টেডেরও করোনা পরীক্ষা হয়েছে, যার ফল নেগেটিভ এসেছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ডিওয়াইন বলেন, পরবর্তী পরীক্ষায় আমার স্বাস্থ্য নিয়ে সুখবর দিয়েছেন চিকিৎসক। অর্থাৎ কোভিড-১৯ রোগের দ্বিতীয় পরীক্ষায় আমার নেগেটিভ এসেছে। এ ছাড়া ফার্স্ট লেডি ফ্রান ডিওয়াইন ও অন্যান্য কর্মকর্তারও করোনা শনাক্ত হয়নি। সব শুভাকাঙ্ক্ষীকে ধন্যবাদ।

হোয়াইট হাউসের প্রধান কর্মকর্তা মার্ক মিডোস বলেন, তার করোনা পজিটিভ আসার পর ট্রাম্পকে শুভেচ্ছা জানাতে বিকল্প ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ওয়াইওতো ট্রাম্পের ভ্রমণ পরিকল্পনায় বড় কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস