বগুড়ায় করোনা ও উপসর্গে ৩ জনের মৃত্যু
jugantor
বগুড়ায় করোনা ও উপসর্গে ৩ জনের মৃত্যু

  বগুড়া ব্যুরো  

১০ আগস্ট ২০২০, ২১:২৫:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পুরোহিতসহ দুইজন এবং উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকালে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে তারা মারা গেলে লাশ পরিবারের কাছ হস্তান্তর করা হয়েছে।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শজিমেক হাসপাতাল ও সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বগুড়া শজিমেক হাসপাতাল সূত্র জানায়, নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার রাজবাড়ী গ্রামের নন্দকুমার (৬৮) রাজশাহী প্রেমতলী মন্দিরের পুরোহিত ছিলেন। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে গত ৪ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি হন। পরে নমুনা পরীক্ষায় তিনি করোনা পজিটিভ হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকালে তিনি মারা যান।

বগুড়ার শেরপুরের খানপুর গ্রামের আবদুর রশিদ (৪২) করোনা উপসর্গে আক্রান্ত হন। তাকে গত ৫ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টার দিকে একই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে তিনি করোনা আক্রান্ত হন। সোমবার বেলা ১১টার দিকে তিনি মারা যান।

এছাড়া বগুড়ার নন্দীগ্রামের বেলঘড়িয়া গ্রামের আবদুর রাজ্জাক (৬৫) করোনা উপসর্গ নিয়ে গত রোববার বিকাল ৩টা ২০ মিনিটে হাসপাতালে ভর্তি হন। তার নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। ফলাফল পাওয়ার আগেই সোমবার সকালে তিনি মারা গেছেন।

সূত্রটি আরও জানায়, লাশ প্রস্তুতের পর দাফন ও সৎকারের জন্য স্বজনদের দেয়া হয়েছে।

বগুড়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. ফারজানুল ইসলাম নির্ঝর জানান, সোমবার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় এ জেলায় ২২ নারী ও তিন শিশুসহ নতুন করে ৬৬ জন করোনা আক্রান্ত হন। এ সময় চিকিৎসকসহ দুইজন মারা গেছেন এবং ৫৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ৫ হাজার ৩০২ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ১১৯ জন ও সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৯৮৬ জন।

বগুড়ায় করোনা ও উপসর্গে ৩ জনের মৃত্যু

 বগুড়া ব্যুরো 
১০ আগস্ট ২০২০, ০৯:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পুরোহিতসহ দুইজন এবং উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকালে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে তারা মারা গেলে লাশ পরিবারের কাছ হস্তান্তর করা হয়েছে।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শজিমেক হাসপাতাল ও সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বগুড়া শজিমেক হাসপাতাল সূত্র জানায়, নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার রাজবাড়ী গ্রামের নন্দকুমার (৬৮) রাজশাহী প্রেমতলী মন্দিরের পুরোহিত ছিলেন। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে গত ৪ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি হন। পরে নমুনা পরীক্ষায় তিনি করোনা পজিটিভ হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকালে তিনি মারা যান।

বগুড়ার শেরপুরের খানপুর গ্রামের আবদুর রশিদ (৪২) করোনা উপসর্গে আক্রান্ত হন। তাকে গত ৫ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টার দিকে একই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে তিনি করোনা আক্রান্ত হন। সোমবার বেলা ১১টার দিকে তিনি মারা যান।

এছাড়া বগুড়ার নন্দীগ্রামের বেলঘড়িয়া গ্রামের আবদুর রাজ্জাক (৬৫) করোনা উপসর্গ নিয়ে গত রোববার বিকাল ৩টা ২০ মিনিটে হাসপাতালে ভর্তি হন। তার নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। ফলাফল পাওয়ার আগেই সোমবার সকালে তিনি মারা গেছেন।

সূত্রটি আরও জানায়, লাশ প্রস্তুতের পর দাফন ও সৎকারের জন্য স্বজনদের দেয়া হয়েছে।

বগুড়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. ফারজানুল ইসলাম নির্ঝর জানান, সোমবার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় এ জেলায় ২২ নারী ও তিন শিশুসহ নতুন করে ৬৬ জন করোনা আক্রান্ত হন। এ সময় চিকিৎসকসহ দুইজন মারা গেছেন এবং ৫৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ৫ হাজার ৩০২ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ১১৯ জন ও সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৯৮৬ জন।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস