গণস্বাস্থ্যের প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন ১৫ আগস্ট
jugantor
গণস্বাস্থ্যের প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন ১৫ আগস্ট

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১২ আগস্ট ২০২০, ১২:৩৩:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

গণস্বাস্থ্যের প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন ১৫ আগস্ট
ফাইল ছবি

ধানমণ্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে প্যাথলজি বিভাগে গণস্বাস্থ্য প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন হবে ১৫ আগস্ট। উদ্বোধন করবেন দেশের মূল প্লাজমা প্রবক্তা ঢাকা মেডিকেল কলেজের হেমাটো অনকোলজিস্ট অধ্যাপক এমএ খান। 


বুধবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টুর পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 


বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকে স্মরণ করে প্লাজমা সেন্টারের উদ্বোধন করা হবে। শুরুতে প্রতিদিন ২৫ জনকে প্লাজমা দেয়া হবে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দরে। সেপ্টেম্বর মাস থেকে প্রতিদিন ৫০ জনকে প্লাজমা দেয়া হবে এবং অতিরিক্ত ৫০ জনকে প্যাকড সেল, প্লাটিলেট, বিভিন্ন ব্লাড ফ্যাক্টরস এবং থ্যালাসেমিয়া ও হিমোগ্লোবিনোপ্যাথির জন্য প্রয়োজনীয় রক্ত সঞ্চালনের ব্যবস্থা করা হবে।

বিবৃতিতে বলা হয়, করোনা বিজয়ীদের (কোভিড-১৯ কনভালেসেন্ট) কাছ থেকে প্লাজমা ও অন্যান্য উপাদানের জন্য রক্তদান কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। করোনা রোগ থেকে যারা মুক্ত হয়েছেন, তাদের রক্তদান করার জন্য আহ্বান করা হয়েছে। একজন সুস্থ ব্যক্তি চার মাস পর পর রক্ত দিতে পারবেন।


আগ্রহী রক্তদাতাদের নিবন্ধনের জন্য নিচের মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। ডা. গোলাম মো. কোরেইশী (মোবাইল: ০১৫৫২৪৬০৭৮০) বিভাগীয় প্রধান, প্যাথলজি বিভাগ, গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। 


 

গণস্বাস্থ্যের প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন ১৫ আগস্ট

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১২ আগস্ট ২০২০, ১২:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গণস্বাস্থ্যের প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন ১৫ আগস্ট
ফাইল ছবি

ধানমণ্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে প্যাথলজি বিভাগে গণস্বাস্থ্য প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন হবে ১৫ আগস্ট। উদ্বোধন করবেন দেশের মূল প্লাজমা প্রবক্তা ঢাকা মেডিকেল কলেজের হেমাটো অনকোলজিস্ট অধ্যাপক এমএ খান।


বুধবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টুর পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।


বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকে স্মরণ করে প্লাজমা সেন্টারের উদ্বোধন করা হবে। শুরুতে প্রতিদিন ২৫ জনকে প্লাজমা দেয়া হবে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দরে। সেপ্টেম্বর মাস থেকে প্রতিদিন ৫০ জনকে প্লাজমা দেয়া হবে এবং অতিরিক্ত ৫০ জনকে প্যাকড সেল, প্লাটিলেট, বিভিন্ন ব্লাড ফ্যাক্টরস এবং থ্যালাসেমিয়া ও হিমোগ্লোবিনোপ্যাথির জন্য প্রয়োজনীয় রক্ত সঞ্চালনের ব্যবস্থা করা হবে।

বিবৃতিতে বলা হয়, করোনা বিজয়ীদের (কোভিড-১৯ কনভালেসেন্ট) কাছ থেকে প্লাজমা ও অন্যান্য উপাদানের জন্য রক্তদান কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। করোনা রোগ থেকে যারা মুক্ত হয়েছেন, তাদের রক্তদান করার জন্য আহ্বান করা হয়েছে। একজন সুস্থ ব্যক্তি চার মাস পর পর রক্ত দিতে পারবেন।


আগ্রহী রক্তদাতাদের নিবন্ধনের জন্য নিচের মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। ডা. গোলাম মো. কোরেইশী (মোবাইল: ০১৫৫২৪৬০৭৮০) বিভাগীয় প্রধান, প্যাথলজি বিভাগ, গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।


 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস