করোনায় জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা সাত্তারের মৃত্যু
jugantor
করোনায় জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা সাত্তারের মৃত্যু

  সেনবাগ প্রতিনিধি  

০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:২৬:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

আবদুস সাত্তার

দীর্ঘ ৩৪ দিন করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা, কলামিস্ট, চট্টগ্রাম বন্দরের সাবেক শ্রমিক নেতা আবদুস সাত্তারের (৭৪) মৃত্যু হয়েছে (ইন্না লিল্লাহি ... রাজিউন)।

চট্টগ্রাম মেটস প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তিনি নোয়াখালী সেনবাগ উপজেলার কাদরা ইউপির চাঁদপুর গ্রামের আবু বক্কর চেয়ারম্যানবাড়ির মৃত মোহাম্মদ ইব্রাহিমের ছেলে। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও পাঁচ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন রেখে গেছেন।

বুধবার বিকাল বাদ আসর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিজ বাড়ির দরজায় পারিবারিক কবরস্থানে মরহুমের দাফন সম্পন্ন করা হবে।

মরহুমের সন্তান বান্দরবান জেলার সহকারী শিক্ষা অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন বাবু জানান, গত ২ আগস্ট তার বাবার (আবদুস সাত্তার) শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। এর পর ৫ আগস্ট করোনার পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এর পর তাকে চট্টগ্রাম মেটস প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

দীর্ঘ ৩৪ দিন করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করে আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাবার মৃত্যু হয়।

জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সাত্তার হালিমা-সাত্তার সরাসরি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হালিম-সাত্তার হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতা।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির সদস্য ও সেনবাগ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হাসান মঞ্জুর, সেনবাগ পৌর জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. হারুন, সেক্রেটারি মো. ফখর উদ্দিনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

করোনায় জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা সাত্তারের মৃত্যু

 সেনবাগ প্রতিনিধি 
০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আবদুস সাত্তার
আবদুস সাত্তার। ছবি: যুগান্তর

দীর্ঘ ৩৪ দিন করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা, কলামিস্ট, চট্টগ্রাম বন্দরের সাবেক শ্রমিক নেতা আবদুস সাত্তারের (৭৪) মৃত্যু হয়েছে (ইন্না লিল্লাহি ... রাজিউন)।

চট্টগ্রাম মেটস প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তিনি নোয়াখালী সেনবাগ উপজেলার কাদরা ইউপির চাঁদপুর গ্রামের আবু বক্কর চেয়ারম্যানবাড়ির মৃত মোহাম্মদ ইব্রাহিমের ছেলে। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও পাঁচ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন রেখে গেছেন।

বুধবার বিকাল বাদ আসর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিজ বাড়ির দরজায় পারিবারিক কবরস্থানে মরহুমের দাফন সম্পন্ন করা হবে।

মরহুমের সন্তান বান্দরবান জেলার সহকারী শিক্ষা অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন বাবু জানান, গত ২ আগস্ট তার বাবার (আবদুস সাত্তার) শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। এর পর ৫ আগস্ট করোনার পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এর পর তাকে চট্টগ্রাম মেটস প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

দীর্ঘ ৩৪ দিন করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করে আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাবার মৃত্যু হয়।

জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সাত্তার হালিমা-সাত্তার সরাসরি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হালিম-সাত্তার হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতা।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির সদস্য ও সেনবাগ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হাসান মঞ্জুর, সেনবাগ পৌর জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. হারুন, সেক্রেটারি মো. ফখর উদ্দিনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস