রাশিয়ার ফার্মেসিতে করোনার ওষুধ বিক্রি সোমবার শুরু
jugantor
রাশিয়ার ফার্মেসিতে করোনার ওষুধ বিক্রি সোমবার শুরু

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:০৫:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ছবি: মস্কো টাইমস

নভেল করোনাভাইরাসের চিকিৎসার জন্য রাশিয়ায় দুটি ওষুধ ফার্মেসিতে বিক্রির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই খবর নিশ্চিত করেছে।

দুটি ওষুধই জাপান ফুজিফিল্মের তৈরি ফ্যাভিপিরাভির জেনেরিকের। রাশিয়ার দাবি, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে এই ওষুধ দুটির ইতিবাচক ফলাফল পাওয়া গেছে।

রুশ সংবাদ মাধ্যম মস্কো টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, দুটি ওষুধ Areplivir ও Koronavir সোমবার থেকে রাশিয়ার বিভিন্ন ফার্মেসিতে পাওয়া যাবে। ডাক্তারের পরামর্শপত্র দেখিয়ে কেনা যাবে।

এভাবে ওষুধের অনুমোদন দেয়ার আগে রাশিয়া জাতীয়ভাবে একটি ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছে। করোনার টিকা পাওয়ার দৌড়ে তাদের পাশাপাশি এখন পর্যন্ত চীন-যুক্তরাষ্ট্র সবচেয়ে এগিয়ে।

চীনের চারটি ভ্যাকসিন তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালে আছে। পৃথিবীর অন্য কোনো দেশ এত ভ্যাকসিন তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালে নিতে পারেনি।

এর মধ্যে চীনা ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপের তৈরি দুটি টিকা ও সিনোভ্যাকের একটি টিকা জরুরিভাবে নাগরিকদের ওপর ব্যবহারের অনুমোদন পেয়েছে। চতুর্থ আরেকটি টিকা সেনাসদস্যদের দেওয়ার জন্য সবুজ সংকেত পেয়েছে।

চীনের ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপের এক কর্মকর্তা বলেছেন, জরুরি ব্যবহার দেখে বোঝা যাচ্ছে টিকা কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানও আত্মবিশ্বাসী যে তাদের টিকা তিন বছর ধরে সুরক্ষা দিতে সক্ষম হবে।

রাশিয়ার ফার্মেসিতে করোনার ওষুধ বিক্রি সোমবার শুরু

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ছবি: মস্কো টাইমস
ছবি: মস্কো টাইমস

নভেল করোনাভাইরাসের চিকিৎসার জন্য রাশিয়ায় দুটি ওষুধ ফার্মেসিতে বিক্রির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই খবর নিশ্চিত করেছে।

দুটি ওষুধই জাপান ফুজিফিল্মের তৈরি ফ্যাভিপিরাভির জেনেরিকের। রাশিয়ার দাবি, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে এই ওষুধ দুটির ইতিবাচক ফলাফল পাওয়া গেছে।

রুশ সংবাদ মাধ্যম মস্কো টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, দুটি ওষুধ Areplivir ও Koronavir সোমবার থেকে রাশিয়ার বিভিন্ন ফার্মেসিতে পাওয়া যাবে। ডাক্তারের পরামর্শপত্র দেখিয়ে কেনা যাবে।  

এভাবে ওষুধের অনুমোদন দেয়ার আগে রাশিয়া জাতীয়ভাবে একটি ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছে। করোনার টিকা পাওয়ার দৌড়ে তাদের পাশাপাশি এখন পর্যন্ত চীন-যুক্তরাষ্ট্র সবচেয়ে এগিয়ে।

চীনের চারটি ভ্যাকসিন তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালে আছে। পৃথিবীর অন্য কোনো দেশ এত ভ্যাকসিন তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালে নিতে পারেনি।

এর মধ্যে চীনা ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপের তৈরি দুটি টিকা ও সিনোভ্যাকের একটি টিকা জরুরিভাবে নাগরিকদের ওপর ব্যবহারের অনুমোদন পেয়েছে। চতুর্থ আরেকটি টিকা সেনাসদস্যদের দেওয়ার জন্য সবুজ সংকেত পেয়েছে।

চীনের ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপের এক কর্মকর্তা বলেছেন, জরুরি ব্যবহার দেখে বোঝা যাচ্ছে টিকা কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানও আত্মবিশ্বাসী যে তাদের টিকা তিন বছর ধরে সুরক্ষা দিতে সক্ষম হবে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস