এমপি ছোট মনির করোনায় আক্রান্ত
jugantor
এমপি ছোট মনির করোনায় আক্রান্ত

  টাঙ্গাইল প্রতিনিধি  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:০০:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) আসনের সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সোমবার সাংসদ ছোট মনিরসহ ১৭ জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার অতিক্রম করল।

এর আগে টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জোয়াহেরুল ইসলাম, টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের সাংসদ একাব্বর হোসেন সপরিবারে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তারা এখন সুস্থ।

এমপি ছোট মনির জানান, জ্বর অনুভব করায় নমুনা পরীক্ষা করে তিনি আক্রান্ত বলে জানতে পারেন। সোমবার বিকালে তিনি ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। ঢাকায় বাংলাদেশ স্পেশালাইজড মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেবেন বলে জানান।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, টাঙ্গাইলে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় ৮ এপ্রিল। পরে এপ্রিল মাসে রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ২৪ জনে। মে মাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হয় ১৬৫, জুন মাসে ৬১২, জুলাই মাসে ১ হাজার ৬৩৮, আগস্ট মাসে ২ হাজার ৫৯৪ জন হয়। সর্বশেষ ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩০১৭ জনে।

মোট আক্রান্ত রোগীর মধ্যে দুই হাজার ৪১৪ জন সুস্থ হয়েছেন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৫৬ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫৪৭ জন।

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ও জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ ওয়াহীদুজ্জামান জানান, জেলায় আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সুস্থতার হার সন্তোষজনক।

এমপি ছোট মনির করোনায় আক্রান্ত

 টাঙ্গাইল প্রতিনিধি 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) আসনের সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সোমবার সাংসদ ছোট মনিরসহ ১৭ জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার অতিক্রম করল।

এর আগে টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জোয়াহেরুল ইসলাম, টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের সাংসদ একাব্বর হোসেন সপরিবারে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তারা এখন সুস্থ।

এমপি ছোট মনির জানান, জ্বর অনুভব করায় নমুনা পরীক্ষা করে তিনি আক্রান্ত বলে জানতে পারেন। সোমবার বিকালে তিনি ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। ঢাকায় বাংলাদেশ স্পেশালাইজড মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেবেন বলে জানান।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, টাঙ্গাইলে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় ৮ এপ্রিল। পরে এপ্রিল মাসে রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ২৪ জনে। মে মাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হয় ১৬৫, জুন মাসে ৬১২, জুলাই মাসে ১ হাজার ৬৩৮, আগস্ট মাসে ২ হাজার ৫৯৪ জন হয়। সর্বশেষ ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩০১৭ জনে।

মোট আক্রান্ত রোগীর মধ্যে দুই হাজার ৪১৪ জন সুস্থ হয়েছেন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৫৬ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫৪৭ জন।

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ও জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ ওয়াহীদুজ্জামান জানান, জেলায় আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সুস্থতার হার সন্তোষজনক।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস