বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভ্যাকসিন পরিকল্পনায় ষাটের বেশি ধনী দেশ
jugantor
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভ্যাকসিন পরিকল্পনায় ষাটের বেশি ধনী দেশ

  অনলাইন ডেস্ক  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩৫:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভ্যাকসিন পরিকল্পনায় ষাটের বেশি ধনী দেশ

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দরিদ্র দেশগুলোর কাছে সহজলভ্য করার লক্ষ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও) যে কর্মসূচি নিয়েছে, তাতে যোগ দিয়েছে বিশ্বের ৬০টিরও বেশি সম্পদশালী দেশ।

তবে সোমবার প্রকাশিত এ তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের নাম নেই।

গ্লোবাল ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স গ্রুপ এবং কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপার্ডনেস ইনোভেশন্স(সিইপিআই) এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কোভিড-১৯ এর ভবিষ্যত ভ্যাকসিনের ন্যয়সঙ্গত বন্টনের লক্ষ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা একটি কৌশল প্রণয়ন করেছে।

কিন্তু কোভ্যাক্স নামের এই কৌশল প্রণীত হলেও এটি তহিবল সংকটে ভুগছিল। এ অবস্থায় ডব্লিওএইচও গত সপ্তাহে ধনী দেশগুলোকে এগিয় আসতে উৎসাহিত করে।

এ পর্যন্ত ৬৪টি ধনী দেশ এতে যোগ দেয়। আরো ৩৮টি দেশ যোগ দেবে বলে জানা গেছে। তিন সংস্থা এক যৌথ বিবৃতিতে এ কথা জানায়।-খবর বাসসের

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ডব্লিওএইচও’র অব্যাহতভাবে সমালোচনা করে যাচ্ছেন। তার ঘোষণা মতে সংস্থাটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের প্রক্রিয়াও চলছে।

এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে গ্লোবাল ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স গ্রুপের প্রধান শেঠ বার্কলে এক ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে বলেন, বিশ্বের সব দেশের সঙ্গেই কাজ করা কোভ্যাক্সের লক্ষ্য।

তিনি আরও বলেন, সব দেশের সঙ্গে আমাদের আলোচনা চলছে এবং এ আলোচনা অব্যাহত থাকবে।

ডব্লিওএইচও প্রধান আশা প্রকাশ করে বলেন, আমাদের এই উদ্যোগে বিশ্ব জনসংখ্যার দুই্ তৃতীয়াংশ প্রতিনিধিত্বকারী দেশগুলো অংশ নিতে সম্মত হয়েছে।

কোভিড-১৯ কে নজিরবিহীন বিশ্ব সংকট হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ সংকট মোকাবেলায় বৈশ্বিক পদক্ষেপও হতে হবে নজিরবিহীন। তিনি বলেন, হয় আমরা একসঙ্গে ডুবব, না হয় সাঁতরে যাবো।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভ্যাকসিন পরিকল্পনায় ষাটের বেশি ধনী দেশ

 অনলাইন ডেস্ক 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভ্যাকসিন পরিকল্পনায় ষাটের বেশি ধনী দেশ
ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দরিদ্র দেশগুলোর কাছে সহজলভ্য করার লক্ষ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও) যে কর্মসূচি নিয়েছে, তাতে যোগ দিয়েছে বিশ্বের ৬০টিরও বেশি সম্পদশালী দেশ।

তবে সোমবার প্রকাশিত এ তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের নাম নেই।

গ্লোবাল ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স গ্রুপ এবং কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপার্ডনেস ইনোভেশন্স(সিইপিআই) এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কোভিড-১৯ এর ভবিষ্যত ভ্যাকসিনের ন্যয়সঙ্গত বন্টনের লক্ষ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা একটি কৌশল প্রণয়ন করেছে।

কিন্তু কোভ্যাক্স নামের এই কৌশল প্রণীত হলেও এটি তহিবল সংকটে ভুগছিল। এ অবস্থায় ডব্লিওএইচও গত সপ্তাহে ধনী দেশগুলোকে এগিয় আসতে উৎসাহিত করে। 

এ পর্যন্ত ৬৪টি ধনী দেশ এতে যোগ দেয়। আরো ৩৮টি দেশ যোগ দেবে বলে জানা গেছে। তিন সংস্থা এক যৌথ বিবৃতিতে এ কথা জানায়।-খবর বাসসের

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ডব্লিওএইচও’র অব্যাহতভাবে সমালোচনা করে যাচ্ছেন। তার ঘোষণা মতে সংস্থাটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের প্রক্রিয়াও চলছে। 

এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে গ্লোবাল ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স গ্রুপের প্রধান শেঠ বার্কলে এক ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে বলেন, বিশ্বের সব দেশের সঙ্গেই কাজ করা কোভ্যাক্সের লক্ষ্য।

তিনি আরও বলেন, সব দেশের সঙ্গে আমাদের আলোচনা চলছে এবং এ আলোচনা অব্যাহত থাকবে।

ডব্লিওএইচও প্রধান আশা প্রকাশ করে বলেন, আমাদের এই উদ্যোগে বিশ্ব জনসংখ্যার দুই্ তৃতীয়াংশ প্রতিনিধিত্বকারী দেশগুলো অংশ নিতে সম্মত হয়েছে। 

কোভিড-১৯ কে নজিরবিহীন বিশ্ব সংকট হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ সংকট মোকাবেলায় বৈশ্বিক পদক্ষেপও হতে হবে নজিরবিহীন। তিনি বলেন, হয় আমরা একসঙ্গে ডুবব, না হয় সাঁতরে যাবো।