নাগরিকদের বাড়ি থেকে কাজ করার আহ্বান বরিস জনসনের
jugantor
নাগরিকদের বাড়ি থেকে কাজ করার আহ্বান বরিস জনসনের

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:৫৫:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় নাগরিকদের সম্ভব হলে বাড়িতে থেকে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। পাশাপাশি দেশজুড়ে নতুন করে কিছু বিধিনিষেধও আরোপ করেছেন তিনি।

করোনার সংক্রমণ বাড়ায় যুক্তরাজ্যে দ্বিতীয় দফা লকডাউন ঘোষণা হতে পারে বলে গতকাল ইঙ্গিত দিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার রোধে গত মার্চে যুক্তরাজ্যে প্রথম দফায় লকডাউন আরোপ করা হয়েছিল। আবারও সংক্রমণ বাড়তে থাকায় এরই মধ্যে কয়েকটি অঞ্চলে স্থানীয়ভাবে লকডাউন জারি করা হয়েছে।

জনসন নিজেও ইংল্যান্ডে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন, যাতে দ্বিতীয় দফা লকডাউন আরোপ করতে না হয়।

চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা করছেন, গত কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাজ্যে যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে এখনই যথাযথ এবং কার্যকর নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা না নেওয়া গেলে আগামী মাসের মধ্যভাগে দৈনিক শনাক্ত ৫০ হাজারে উঠে যাবে।

এরপরই মন্ত্রীদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন জনসন। মঙ্গলবার বৈঠকের পর তিনি পার্লামেন্টে এ নিয়ে কথা বলবেন এবং জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন।

এছাড়া, আগামী বৃহস্পতিবার থেকে ইংল্যান্ডজুড়ে সব বার, রেস্তোরাঁ, পাব এবং অন্যান্য অতিথিশালা রাত ১০টার মধ্যে বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ জারি হয়েছে।

নাগরিকদের বাড়ি থেকে কাজ করার আহ্বান বরিস জনসনের

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ছবি: সংগৃহীত

করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় নাগরিকদের সম্ভব হলে বাড়িতে থেকে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। পাশাপাশি দেশজুড়ে নতুন করে কিছু বিধিনিষেধও আরোপ করেছেন তিনি। 

করোনার সংক্রমণ বাড়ায় যুক্তরাজ্যে দ্বিতীয় দফা লকডাউন ঘোষণা হতে পারে বলে গতকাল ইঙ্গিত দিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার রোধে গত মার্চে যুক্তরাজ্যে প্রথম দফায় লকডাউন আরোপ করা হয়েছিল। আবারও  সংক্রমণ বাড়তে থাকায় এরই মধ্যে কয়েকটি অঞ্চলে স্থানীয়ভাবে লকডাউন জারি করা হয়েছে।

জনসন নিজেও ইংল্যান্ডে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন, যাতে দ্বিতীয় দফা লকডাউন আরোপ করতে না হয়। 

চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা করছেন, গত কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাজ্যে যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে এখনই যথাযথ এবং কার্যকর নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা না নেওয়া গেলে আগামী মাসের মধ্যভাগে দৈনিক শনাক্ত ৫০ হাজারে উঠে যাবে। 

এরপরই মন্ত্রীদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন জনসন। মঙ্গলবার বৈঠকের পর তিনি পার্লামেন্টে এ নিয়ে কথা বলবেন এবং জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন।

এছাড়া, আগামী বৃহস্পতিবার থেকে ইংল্যান্ডজুড়ে সব বার, রেস্তোরাঁ, পাব এবং অন্যান্য অতিথিশালা রাত ১০টার মধ্যে বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ জারি হয়েছে।