ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত
jugantor
ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ অক্টোবর ২০২০, ১৫:৩৬:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত

ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

দেশটিতে এই প্রথমবারের মতো একদিনে এতসংখ্যক লোক এ ভাইরাসে আক্রান্ত হলো। বৃহস্পতিবার সরকারি উপাত্তের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে।

ফ্রান্সের সরকারি স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজার ৬২১ জন কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাত্যহিক হিসেবে এটি একটি নতুন রেকর্ড।

সংস্থা জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে ৮৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ নিয়ে মহামারীর শুরু থেকে ফ্রান্সে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩ হাজার ১২৫ জনে দাঁড়াল।

এমন পরিস্থিতিতে জীবন বাঁচাতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ অত্যাবশ্যক বলে মন্তব্য করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

কেবল ফ্রান্সই নয়, সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে ইউরোপের অন্যান্য দেশও।

মহাদেশটির লাখ লাখ মানুষকে এখন কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যেই দিন কাটাতে হচ্ছে।

গণহারে শনাক্তকরণ শুরুর পর থেকে বৃহস্পতিবার ফ্রান্সের পাশাপাশি পোল্যান্ড ও ইতালিও একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক কোভিড-১৯ রোগী পেয়েছে।

একই দিনে রাশিয়ায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২৮৬ জনের মৃত্যুর খবরও পাওয়া গেছে। মহামারী শুরুর পর দেশটিতে আর কখনই একদিনে এতজনের মৃত্যু হয়নি।

ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত
ছবি: সংগৃহীত

ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

দেশটিতে এই প্রথমবারের মতো একদিনে এতসংখ্যক লোক এ ভাইরাসে আক্রান্ত হলো। বৃহস্পতিবার সরকারি উপাত্তের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে।

ফ্রান্সের সরকারি স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজার ৬২১ জন কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাত্যহিক হিসেবে এটি একটি নতুন রেকর্ড।

সংস্থা জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে ৮৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ নিয়ে মহামারীর শুরু থেকে ফ্রান্সে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩ হাজার ১২৫ জনে দাঁড়াল।

এমন পরিস্থিতিতে জীবন বাঁচাতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ অত্যাবশ্যক বলে মন্তব্য করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

কেবল ফ্রান্সই নয়, সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে ইউরোপের অন্যান্য দেশও। 

মহাদেশটির লাখ লাখ মানুষকে এখন কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যেই দিন কাটাতে হচ্ছে।

গণহারে শনাক্তকরণ শুরুর পর থেকে বৃহস্পতিবার ফ্রান্সের পাশাপাশি পোল্যান্ড ও ইতালিও একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক কোভিড-১৯ রোগী পেয়েছে।

একই দিনে রাশিয়ায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২৮৬ জনের মৃত্যুর খবরও পাওয়া গেছে। মহামারী শুরুর পর দেশটিতে আর কখনই একদিনে এতজনের মৃত্যু হয়নি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস