যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের নতুন রেকর্ড
jugantor
যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের নতুন রেকর্ড

  অনলাইন ডেস্ক  

২৪ অক্টোবর ২০২০, ১৭:০৬:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের নতুন রেকর্ড

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে টালমাটাল যুক্তরাষ্ট্র। কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা।

দেশটিতে আবারও দৈনিক করোনাভাইরাস সংক্রমণের সংখ্যা রেকর্ড পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। শুক্রবার একদিনেই ৮৩ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের সব রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে কোভিড ট্র্যাকিং প্রজেক্ট ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন ৮৩ হাজার ১০ জনের শরীরে ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে।

একই প্রতিষ্ঠানের হিসাবে ১৭ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে ৭৬ হাজার ৮৪২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল। শুক্রবার তার চেয়েও ৬ হাজার বেশি রোগী মিলল।

ওয়ার্ল্ডওমিটারসের সবশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মহামারী শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৮৭ লাখ ৪৭ হাজার ৮৬৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় সামনের দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালে ভর্তির পরিমাণ বাড়বে বলে সতর্ক করেছেন মার্কিন সার্জন জেনারেল জেরোম অ্যাডামস।

তার ধারণা, হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়লেও এবার মৃত্যুর সংখ্যা আগের তুলনায় অনেক কম হবে।

মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্র এখন সবার ওপরে। বিশ্বের যে কোনো দেশের চেয়ে বেশি করোনা রোগী এখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশে।

গত বছরের শেষ দিকে চীনের উহান শহর থেকে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছিল। এর পর এই ভাইরাস বিশ্বের ২০০ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে।

মার্চের মাঝামাঝি সময়ে পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাসকে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের নতুন রেকর্ড

 অনলাইন ডেস্ক 
২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৫:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের নতুন রেকর্ড
ছবি: আনাদোলু এজেন্সি

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে টালমাটাল যুক্তরাষ্ট্র। কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। 

দেশটিতে আবারও দৈনিক করোনাভাইরাস সংক্রমণের সংখ্যা রেকর্ড পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। শুক্রবার একদিনেই ৮৩ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের সব রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে কোভিড ট্র্যাকিং প্রজেক্ট ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন ৮৩ হাজার ১০ জনের শরীরে ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে।

একই প্রতিষ্ঠানের হিসাবে ১৭ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে ৭৬ হাজার ৮৪২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল। শুক্রবার তার চেয়েও ৬ হাজার বেশি রোগী মিলল।

ওয়ার্ল্ডওমিটারসের সবশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মহামারী শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৮৭ লাখ ৪৭ হাজার ৮৬৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। 

রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় সামনের দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালে ভর্তির পরিমাণ বাড়বে বলে সতর্ক করেছেন মার্কিন সার্জন জেনারেল জেরোম অ্যাডামস।

তার ধারণা, হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়লেও এবার মৃত্যুর সংখ্যা আগের তুলনায় অনেক কম হবে।

মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্র এখন সবার ওপরে। বিশ্বের যে কোনো দেশের চেয়ে বেশি করোনা রোগী এখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশে।

গত বছরের শেষ দিকে চীনের উহান শহর থেকে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছিল। এর পর এই ভাইরাস বিশ্বের ২০০ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে। 

মার্চের মাঝামাঝি সময়ে পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাসকে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করে।  
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

২৭ নভেম্বর, ২০২০