কানাডার টরন্টো ও পিল অঞ্চলে সোমবার থেকে লকডাউন
jugantor
কানাডার টরন্টো ও পিল অঞ্চলে সোমবার থেকে লকডাউন

  রাজীব আহসান, কানাডা থেকে  

২২ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৫৮:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কানাডার টরন্টো ও পিল অঞ্চলে সোমবার থেকে লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। লকডাউনে জিমনেসিয়াম ও ব্যক্তিগত পরিষেবাসহ জরুরি নয়, এমন সব ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ থাকবে এবং লকডাউনের আওতায় হটস্পট এলাকাগুলোতে হোটেল-রেস্টুরেন্টে বসে খাওয়া যাবে না।

কানাডায় করোনা মহামারীর দ্বিতীয় পর্যায়ে আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। বিভিন্ন প্রদেশে ক্রমবর্ধমানহারে করোনাভাইরাস বেড়ে যাওয়ায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কানাডার প্রধান চার প্রদেশ অন্টারিও, ব্রিটিশ কলম্বিয়া, আলবার্টা এবং কুইবেকে উদ্বেগজনকভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।

আর করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে হাসপাতাল, নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ব্যাপকহারে চাপ পড়ছে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কানাডিয়ানদের সতর্ক করে বলেছেন- সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনে কঠিন সময় অপেক্ষা করছে। শুক্রবার রিডাউ কটেজে তার বাড়ির বাইরে সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো কানাডিয়ানদের বাড়িতে থাকতে এবং স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলার আহ্বান জানান।

কানাডায় এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ২৫ হাজার ৭১১ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ হাজার ৪০৬ এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৬০ হাজার ৩৯৮ জন।

কানাডার টরন্টো ও পিল অঞ্চলে সোমবার থেকে লকডাউন

 রাজীব আহসান, কানাডা থেকে 
২২ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৫৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কানাডার টরন্টো ও পিল অঞ্চলে সোমবার থেকে লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। লকডাউনে জিমনেসিয়াম ও ব্যক্তিগত পরিষেবাসহ জরুরি নয়, এমন সব ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ থাকবে এবং লকডাউনের আওতায় হটস্পট এলাকাগুলোতে হোটেল-রেস্টুরেন্টে বসে খাওয়া যাবে না।

কানাডায় করোনা মহামারীর দ্বিতীয় পর্যায়ে আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। বিভিন্ন প্রদেশে ক্রমবর্ধমানহারে করোনাভাইরাস বেড়ে যাওয়ায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কানাডার প্রধান চার প্রদেশ অন্টারিও, ব্রিটিশ কলম্বিয়া, আলবার্টা এবং কুইবেকে উদ্বেগজনকভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।

আর করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে হাসপাতাল, নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ব্যাপকহারে চাপ পড়ছে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কানাডিয়ানদের সতর্ক করে বলেছেন- সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনে কঠিন সময় অপেক্ষা করছে। শুক্রবার রিডাউ কটেজে তার বাড়ির বাইরে সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো কানাডিয়ানদের বাড়িতে থাকতে এবং স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলার আহ্বান জানান।

কানাডায় এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ২৫ হাজার ৭১১ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ হাজার ৪০৬ এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৬০ হাজার ৩৯৮ জন।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস