ইউরোপে অনুমোদন পেল বায়োএনটেক-ফাইজারের টিকা
jugantor
ইউরোপে অনুমোদন পেল বায়োএনটেক-ফাইজারের টিকা

  অনলাইন ডেস্ক  

২২ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:৪৭:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রতিষ্ঠান ফাইজার জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেকের যৌথ উদ্যোগে তৈরি করোনার ভ্যাকসিনটিকে এবার অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সি।

ফলে ডিসেম্বরের শেষের দিক থেকেই করোনার টিকা দেয়া শুরু করতে পারবে ইউরোপের দেশগুলো৷ খবর ডেইলি সাবাহ ও ডয়েচে ভেলের।

শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের বিভিন্ন দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ বেশ বড় আকারেই ধাক্কা দিয়েছে৷ জার্মানিসহ বিভিন্ন দেশ আবারও লকডাউনের মতো সিদ্ধান্ত নিতেও বাধ্য হয়েছে৷

ফলে দীর্ঘদিন ধরেই টিকার অনুমোদনের জন্য অপেক্ষা করছিল দেশগুলো৷ জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেক টিকা উৎপাদন করলেও অনুমোদন না পাওয়ায় জার্মানিতেই এতদিন শুরু করা যায়নি টিকাদান৷

গত ৮ ডিসেম্বর বায়োএনটেক ও ফাইজারের টিকার প্রথম ডোজ নেন ৯০ বছরের মার্গারেট৷ যুক্তরাজ্যে প্রথম ৮ লাখ টিকা পাবেন তার মতো প্রবীণ, সামনের সারির স্বাস্থ্যকর্মীসহ বাকি বয়স্ক নাগরিকরা৷


ফাইজারের প্রথম টিকা নেয়া ব্রিটিশ নারী মার্গারেট

ফাইজারের কাছে মোট চার কোটি ডোজ টিকার অর্ডার দিয়েছে দেশটি, যার মাধ্যমে দুই ডোজ করে দুই কোটি মানুষের ভ্যাকসিনের নিশ্চয়তা মিলছে৷

পাঁচ কোটি ৩০ লাখ নাগরিকের সবাইকে টিকা দিতে যুক্তরাজ্যকে নির্ভর করতে হবে অন্য কোম্পানিগুলোর ওপরে৷

তবে আগে থেকেই বিভিন্ন দেশ টিকা দেয়ার প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন৷ ফলে ইইউয়ের প্রায় ৪৫ কোটি মানুষের কাছে টিকা পৌঁছে দেয়ার ক্ষেত্রে আরও একধাপ আগানো গেল৷

এখন ইউরোপীয় কমিশন আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিলেই ইইউয়ের দেশগুলো টিকা দেয়া শুরু করতে পারবে৷ অনুমোদন পাওয়ার আগে থেকেই ২৭ ডিসেম্বর থেকে টিকা দেয়ার ঘোষণা দিয়ে রেখেছিল জার্মানি৷

ইউরোপে অনুমোদন পেল বায়োএনটেক-ফাইজারের টিকা

 অনলাইন ডেস্ক 
২২ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রতিষ্ঠান ফাইজার জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেকের যৌথ উদ্যোগে তৈরি করোনার ভ্যাকসিনটিকে এবার অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সি।

ফলে ডিসেম্বরের শেষের দিক থেকেই করোনার টিকা দেয়া শুরু করতে পারবে ইউরোপের দেশগুলো৷ খবর ডেইলি সাবাহ ও ডয়েচে ভেলের।

শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের বিভিন্ন দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ বেশ বড় আকারেই ধাক্কা দিয়েছে৷ জার্মানিসহ বিভিন্ন দেশ আবারও লকডাউনের মতো সিদ্ধান্ত নিতেও বাধ্য হয়েছে৷

ফলে দীর্ঘদিন ধরেই টিকার অনুমোদনের জন্য অপেক্ষা করছিল দেশগুলো৷ জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেক টিকা উৎপাদন করলেও অনুমোদন না পাওয়ায় জার্মানিতেই এতদিন শুরু করা যায়নি টিকাদান৷

গত ৮ ডিসেম্বর বায়োএনটেক ও ফাইজারের টিকার প্রথম ডোজ নেন ৯০ বছরের মার্গারেট৷ যুক্তরাজ্যে প্রথম ৮ লাখ টিকা পাবেন তার মতো প্রবীণ, সামনের সারির স্বাস্থ্যকর্মীসহ বাকি বয়স্ক নাগরিকরা৷


ফাইজারের প্রথম টিকা নেয়া ব্রিটিশ নারী মার্গারেট

ফাইজারের কাছে মোট চার কোটি ডোজ টিকার অর্ডার দিয়েছে দেশটি, যার মাধ্যমে দুই ডোজ করে দুই কোটি মানুষের ভ্যাকসিনের নিশ্চয়তা মিলছে৷

পাঁচ কোটি ৩০ লাখ নাগরিকের সবাইকে টিকা দিতে যুক্তরাজ্যকে নির্ভর করতে হবে অন্য কোম্পানিগুলোর ওপরে৷

তবে আগে থেকেই বিভিন্ন দেশ টিকা দেয়ার প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন৷ ফলে ইইউয়ের প্রায় ৪৫ কোটি মানুষের কাছে টিকা পৌঁছে দেয়ার ক্ষেত্রে আরও একধাপ আগানো গেল৷

এখন ইউরোপীয় কমিশন আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিলেই ইইউয়ের দেশগুলো টিকা দেয়া শুরু করতে পারবে৷ অনুমোদন পাওয়ার আগে থেকেই ২৭ ডিসেম্বর থেকে টিকা দেয়ার ঘোষণা দিয়ে রেখেছিল জার্মানি৷

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস