নেদারল্যান্ডসে ভ্যাকসিনবিরোধীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ
jugantor
নেদারল্যান্ডসে ভ্যাকসিনবিরোধীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:৫৮:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডামে লকডাউন ও ভ্যাকসিনবিরোধীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। বিক্ষোভ সামাল দিতে এই শীতেও জলকামান ব্যবহার করেছে পুলিশ।

করোনায় লকডাউন ও ভ্যাকসিনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে দুই হাজারের মতো বিক্ষোভকারী জমায়েত হয়েছিলেন আমস্টারডামে। খবর ডয়েচে ভেলের।

ভ্যান গখ মিউজিয়ামের সামনের চত্বরে বিক্ষোভে জড়ো হন তারা। অনেকের হাতে ধরা পোস্টারে লেখা ছিল– 'কোভিড ভ্যাকসিন=বিষ'। সরকার যে করোনা ঠেকাতে কড়া লকডাউন চালু করেছে, তারও প্রতিবাদ জানাচ্ছিলেন তারা।

বিক্ষোভকারীরা সামাজিক দূরত্ব রাখেননি। তাদের মুখে মাস্কও ছিল না। পুলিশ এই বিক্ষোভে বাধা দেয়।

আমস্টারডাম নগর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা জানিয়ে দিয়েছিলেন, বিক্ষোভ করতে হলে ওয়েস্টারপার্ক এলাকায় যেতে হবে এবং সেখানে ৫০০ জনের বেশি বিক্ষোভকারী থাকতে পারবেন না।

নেদারল্যান্ডসে গত ডিসেম্বর থেকেই সব স্কুল-কলেজ বন্ধ। সম্প্রতি লকডাউনের মেয়াদ আরও তিন সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিক্ষোভকারীরা জমায়েত হলে পুলিশ তাদের চলে যেতে বলে। কিন্তু তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর মারতে থাকে। পুলিশ তখন জলকামান নিয়ে আসে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে জলকামান চালানো হয়। বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

নেদারল্যান্ডসে ভ্যাকসিনবিরোধীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০২:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডামে লকডাউন ও ভ্যাকসিনবিরোধীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। বিক্ষোভ সামাল দিতে এই শীতেও জলকামান ব্যবহার করেছে পুলিশ।

করোনায় লকডাউন ও ভ্যাকসিনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে দুই হাজারের মতো বিক্ষোভকারী জমায়েত হয়েছিলেন আমস্টারডামে। খবর ডয়েচে ভেলের।

ভ্যান গখ মিউজিয়ামের সামনের চত্বরে বিক্ষোভে জড়ো হন তারা। অনেকের হাতে ধরা পোস্টারে লেখা ছিল– 'কোভিড ভ্যাকসিন=বিষ'। সরকার যে করোনা ঠেকাতে কড়া লকডাউন চালু করেছে, তারও প্রতিবাদ জানাচ্ছিলেন তারা।

বিক্ষোভকারীরা সামাজিক দূরত্ব রাখেননি। তাদের মুখে মাস্কও ছিল না।  পুলিশ এই বিক্ষোভে বাধা দেয়।

আমস্টারডাম নগর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা জানিয়ে দিয়েছিলেন, বিক্ষোভ করতে হলে ওয়েস্টারপার্ক এলাকায় যেতে হবে এবং সেখানে ৫০০ জনের বেশি বিক্ষোভকারী থাকতে পারবেন না।

নেদারল্যান্ডসে গত ডিসেম্বর থেকেই সব স্কুল-কলেজ বন্ধ। সম্প্রতি লকডাউনের মেয়াদ আরও তিন সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিক্ষোভকারীরা জমায়েত হলে পুলিশ তাদের চলে যেতে বলে। কিন্তু তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর মারতে থাকে। পুলিশ তখন জলকামান নিয়ে আসে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে জলকামান চালানো হয়। বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস