করোনার টিকা বেসরকারিভাবে আমদানির প্রস্তাব সংসদে
jugantor
করোনার টিকা বেসরকারিভাবে আমদানির প্রস্তাব সংসদে

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২১ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:৫১:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনার টিকা বেসরকারিভাবে আমদানির প্রস্তাব সংসদে

সরকারি ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি বেসরকারিভাবেও করোনাভাইরাসের টিকা আমদানির প্রস্তাব জাতীয় সংসদে তুলেছেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য রুস্তম আলী ফরাজী।

বৃহস্পতিবার সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের উপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞ কমিটির মাধ্যমে বেসরকারিভাবে যারা দক্ষ তাদের সঙ্গে আলোচনা করে করোনার টিকা আনার অনুমতি দেওয়া উচিত।

রুস্তম আলী ফরাজী বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে কথা ওঠে। আমি মনে করি এ ব্যাপারে সবার সঙ্গে যোগাযোগ করা উচিত ছিল। সরকার টু সরকার যেটা পারবে আমার ধারণা বেসরকারিভাবে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটির মাধ্যমে বেসরকারিভাবে যারা দক্ষ তাদের মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে আলোচনা করে ইউরোপ হোক, যুক্তরাষ্ট্র হোক চায়না হোক সেখানে থেকে আনার আনার সুযোগ দেওয়া উচিত।

সরকারিভাবে আনা টিকা সবাই পাচ্ছে না জানিয়ে তিনি বলেন, একটা ডোজ কিনতে ৬/৭শ’ টাকা লাগবে। যাদের দরকার তারা কিনে নিতে পারবেন। দেশের ৫০ ভাগ মানুষ এই টাকা দিয়ে টিকা কিনে নিতে পারবেন। তাদের ক্রয় করে টিকা নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া উচিত। যারা পারবে না, তাদের জন্য সরকারিভাবে এনে বিনামূল্যে দেওয়া হবে।

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২০ লাখ ডোজ টিকা বৃহস্পতিবার ঢাকায় পৌঁছেছে। এই টিকা চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে দিয়েছে ভারত।

সরকারিভাবেও সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে একই টিকার তিন কোটি ডোজ কেনা হচ্ছে, যার প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ টিকা ২৫ জানুয়ারির মধ্যে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় সরকার সফল উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফরাজী বলেন, করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সফলতা দেখিয়েছে, যা অনেক উন্নত দেশ পারেনি। করোনা মোকাবেলা করে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে রুস্তম আলী ফরাজী বলেন, দেশের মানুষের আপনার ওপর আস্থা আছে, দেশের মানুষ আপনাকে বিশ্বাস করে, সব ঠিক আছে কিন্তু আমাদের কিছু ঝুঁকিও আছে। এই ঝুঁকিগুলোর দিকে খেয়াল দিতে হবে। সামাজিক শক্তিকে জাগিয়ে তুলতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে তিনি আরও বলেন, সমালোচকরা সমালোচনা করবেই আপনার তাতে কোনভাবে ভ্রুক্ষেপ করবেন না, আপনি এগিয়ে যান, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, অর্থনীতি সচল হচ্ছে, মানুষ চায় দুর্নীতিমুক্ত একটি সমাজ সাধারণ মানুষের আপনার ওপর আস্থা আছে এই আস্থা যেন কখনো নষ্ট না হয়।

অন্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন আব্দুল মান্নান, ইকবাল হাসেন, আনজুম সুলতানা, পংকজ দেবনাথ, বীরেন শিকদার, জিন্নাতুল বাকিয়া প্রমুখ।

করোনার টিকা বেসরকারিভাবে আমদানির প্রস্তাব সংসদে

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৩:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনার টিকা বেসরকারিভাবে আমদানির প্রস্তাব সংসদে
ফাইল ছবি

সরকারি ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি বেসরকারিভাবেও করোনাভাইরাসের টিকা আমদানির প্রস্তাব জাতীয় সংসদে তুলেছেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য রুস্তম আলী ফরাজী।

বৃহস্পতিবার সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের উপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞ কমিটির মাধ্যমে বেসরকারিভাবে যারা দক্ষ তাদের সঙ্গে আলোচনা করে করোনার টিকা আনার অনুমতি দেওয়া উচিত।

রুস্তম আলী ফরাজী বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে কথা ওঠে।  আমি মনে করি এ ব্যাপারে সবার সঙ্গে যোগাযোগ করা উচিত ছিল। সরকার টু সরকার যেটা পারবে আমার ধারণা বেসরকারিভাবে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটির মাধ্যমে বেসরকারিভাবে যারা দক্ষ তাদের মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে আলোচনা করে ইউরোপ হোক, যুক্তরাষ্ট্র হোক চায়না হোক সেখানে থেকে আনার আনার সুযোগ দেওয়া উচিত।

সরকারিভাবে আনা টিকা সবাই পাচ্ছে না জানিয়ে তিনি বলেন, একটা ডোজ কিনতে ৬/৭শ’ টাকা লাগবে। যাদের দরকার তারা কিনে নিতে পারবেন। দেশের ৫০ ভাগ মানুষ এই টাকা দিয়ে টিকা কিনে নিতে পারবেন।  তাদের ক্রয় করে টিকা নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া উচিত। যারা পারবে না, তাদের জন্য সরকারিভাবে এনে বিনামূল্যে দেওয়া হবে।

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২০ লাখ ডোজ টিকা বৃহস্পতিবার ঢাকায় পৌঁছেছে। এই টিকা চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে দিয়েছে ভারত।

সরকারিভাবেও সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে একই টিকার তিন কোটি ডোজ কেনা হচ্ছে, যার প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ টিকা ২৫ জানুয়ারির মধ্যে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় সরকার সফল উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফরাজী বলেন, করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সফলতা দেখিয়েছে, যা অনেক উন্নত দেশ পারেনি। করোনা মোকাবেলা করে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। 

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে রুস্তম আলী ফরাজী বলেন, দেশের মানুষের আপনার ওপর আস্থা আছে, দেশের মানুষ আপনাকে বিশ্বাস করে, সব ঠিক আছে কিন্তু আমাদের কিছু ঝুঁকিও আছে। এই ঝুঁকিগুলোর দিকে খেয়াল দিতে হবে। সামাজিক শক্তিকে জাগিয়ে তুলতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে তিনি আরও বলেন, সমালোচকরা সমালোচনা করবেই আপনার তাতে কোনভাবে ভ্রুক্ষেপ করবেন না, আপনি এগিয়ে যান, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, অর্থনীতি সচল হচ্ছে, মানুষ চায় দুর্নীতিমুক্ত একটি সমাজ সাধারণ মানুষের আপনার ওপর আস্থা আছে এই আস্থা যেন কখনো নষ্ট না হয়।

অন্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন আব্দুল মান্নান, ইকবাল হাসেন, আনজুম সুলতানা, পংকজ দেবনাথ, বীরেন শিকদার, জিন্নাতুল বাকিয়া প্রমুখ।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১