টিকা নেওয়ার পর যা বললেন স্বাস্থ্যের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা বেগম
jugantor
টিকা নেওয়ার পর যা বললেন স্বাস্থ্যের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা বেগম

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৯:৩১:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

দেশে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হয়েছে বুধবার। এদিন করোনার ভ্যাকসিন নেয়ার পর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা বেগম বলেছেন, এটা খুবই সাধারণ একটি বিষয়। খুব ছোট একটি নিডল। এটি নেওয়ার সময় আমি কোনো ব্যথা অনুভব করিনি। ভ্যাকসিন নিলে ক্ষতি হবে- এটা যে একটা অপপ্রচার তা বন্ধ করার জন্য আমি আগে ভ্যাকসিন নিয়েছি।

এদিন ভ্যাকসিন গ্রহণ করা প্রথম পাঁচ জনের মধ্যে ছিলেন নাসিমা বেগম। তিনি বলেন, একজন স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে যদি আমি আগে ভ্যাকসিন না নিয়ে অন্যদেরকে বলি আপনারা ভ্যাকসিন নিন, সেটা সঠিক হবে না। আমি যে টিকা নেব- আমার পরিবারের সদস্যদের জানাইনি, আমার সহকর্মীদেরও জানাইনি। নিজে থেকেই সংকল্প করেছি প্রথম অবস্থাতেই আমি ভ্যাকসিন নেব।

নাসিমা বেগম বলেন, বাচ্চাদেরকে ভ্যাকসিন দেয়ার সময় হালকা জ্বর হয় যেখানে দেয়া হয়, সে জায়গাটা হালকা ফুলে যায়, লাল হয়ে যায়। তখনই বোঝা যায় ভ্যাকসিন ভালো কাজ করছে। এটুকু আমাদেরকে মেনে নিতেই হবে। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন নেওয়ার পর সামান্য জ্বর, ব্যথা, খাবারে অরুচি, বমি বমি ভাব- এরকম একটু হতেই পারে এটা স্বাভাবিক। আবার নাও হতে পারে। তাই এসব বিষয় মাথায় নিয়ে আমাদেরকে ভ্যাকসিন দিতে হবে।

টিকা নেওয়ার পর যা বললেন স্বাস্থ্যের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা বেগম

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৭:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দেশে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হয়েছে বুধবার। এদিন করোনার ভ্যাকসিন নেয়ার পর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা বেগম বলেছেন, এটা খুবই সাধারণ একটি বিষয়। খুব ছোট একটি নিডল। এটি নেওয়ার সময় আমি কোনো ব্যথা অনুভব করিনি। ভ্যাকসিন নিলে ক্ষতি হবে- এটা যে একটা অপপ্রচার তা বন্ধ করার জন্য আমি আগে ভ্যাকসিন নিয়েছি।

এদিন ভ্যাকসিন গ্রহণ করা প্রথম পাঁচ জনের মধ্যে ছিলেন নাসিমা বেগম। তিনি বলেন, একজন স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে যদি আমি আগে ভ্যাকসিন না নিয়ে অন্যদেরকে বলি আপনারা ভ্যাকসিন নিন, সেটা সঠিক হবে না। আমি যে টিকা নেব- আমার পরিবারের সদস্যদের জানাইনি, আমার সহকর্মীদেরও জানাইনি। নিজে থেকেই সংকল্প করেছি প্রথম অবস্থাতেই আমি ভ্যাকসিন নেব।

নাসিমা বেগম বলেন, বাচ্চাদেরকে ভ্যাকসিন দেয়ার সময় হালকা জ্বর হয় যেখানে দেয়া হয়, সে জায়গাটা হালকা ফুলে যায়, লাল হয়ে যায়। তখনই বোঝা যায় ভ্যাকসিন ভালো কাজ করছে। এটুকু আমাদেরকে মেনে নিতেই হবে। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন নেওয়ার পর সামান্য জ্বর, ব্যথা, খাবারে অরুচি, বমি বমি ভাব- এরকম একটু হতেই পারে এটা স্বাভাবিক। আবার নাও হতে পারে। তাই এসব বিষয় মাথায় নিয়ে আমাদেরকে ভ্যাকসিন দিতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস