মন্ত্রী ও রাজনীতিকদের মধ্যে প্রথম টিকা নিলেন পলক
jugantor
মন্ত্রী ও রাজনীতিকদের মধ্যে প্রথম টিকা নিলেন পলক

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০৭:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

মন্ত্রী ও রাজনীতিকদের মধ্যে প্রথম টিকা নিলেন পলক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) টিকাদান কেন্দ্রে করোনার টিকা নিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী (আইসিটি) জুনাইদ আহমেদ পলক। মন্ত্রিপরিষদ ও দেশের রাজনীতিবিদরদের মধ্যে প্রথম সদস্য হিসেবে টিকা নিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ৪২ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের কনভেনশন সেন্টারে কোভিড-১৯ টিকাদান কেন্দ্রে এ টিকা নেন পলক।

এর আগে তিনি টিকা নিবন্ধন সম্পন্ন করেন। নিবন্ধন করার পর নির্ধারিত বুথে গিয়ে টিকা নেন প্রতিমন্ত্রী। পরে পর্যবেক্ষণের জন্য নির্ধারিত জায়গায় বিশ্রাম নেন।

এ সময় স্বাস্থ্য সচিব আব্দুল মান্নান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

সকাল ৯টা ১০ মিনিটে বিএসএমএমউর বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স সেন্টারে ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া প্রথম টিকা নিয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

সকাল ১০টা ৪২ মিনিটে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক টিকা নেন। এরপর বেলা ১১টায় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আব্দুল মান্নান ও তথ্য সচিব খাজা মিয়া টিকা নেন।

বিএসএমএমইউয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার মজুমদার জানান, দুপুর পর্যন্ত ১২৫ জন করোনা টিকা নিয়েছেন।’

বিএসএমএমইউয়ে টিকা নেওয়ার পর ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, ‘টিকা নেওয়াটা আমার সামাজিক, রাষ্ট্রীয় ও ব্যক্তিগত দায়িত্ব। আমাকে দেখে মানুষ আস্থা পাবে, সাহস পাবে। এখানে আজ বহু মানুষ টিকা নিতে জড়ো হয়েছেন। বুধবার পর্যন্ত টিকা নেওয়া নিয়ে মানুষের মনে সংশয় ছিল। সংশয় কেটে যেতে শুরু করেছে। আমরা এটিই চাই।’

এর আগে গতকাল বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে করোনা টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঁচজনকে টিকা দেওয়া হয়। প্রথম টিকা নেন কুর্মিটোলা হাসপাতালের নার্স রুনু বেরুনিকা কস্তা।

আরও টিকা নিয়েছেন- ডা. আহমেদ লুৎফুল মোবেন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা, ট্রাফিক পুলিশের মতিঝিল বিভাগের কর্মকর্তা দিদারুল ইসলাম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ। সব মিলিয়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে বিভিন্ন পেশার ২৬ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়।


মন্ত্রী ও রাজনীতিকদের মধ্যে প্রথম টিকা নিলেন পলক

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মন্ত্রী ও রাজনীতিকদের মধ্যে প্রথম টিকা নিলেন পলক
ছবি: সংগৃহীত

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) টিকাদান কেন্দ্রে করোনার টিকা নিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী (আইসিটি) জুনাইদ আহমেদ পলক।  মন্ত্রিপরিষদ ও দেশের রাজনীতিবিদরদের মধ্যে প্রথম সদস্য হিসেবে টিকা নিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ৪২ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের কনভেনশন সেন্টারে কোভিড-১৯ টিকাদান কেন্দ্রে এ টিকা নেন পলক।

এর আগে তিনি টিকা নিবন্ধন সম্পন্ন করেন। নিবন্ধন করার পর নির্ধারিত বুথে গিয়ে টিকা নেন প্রতিমন্ত্রী। পরে পর্যবেক্ষণের জন্য নির্ধারিত জায়গায় বিশ্রাম নেন।

এ সময় স্বাস্থ্য সচিব আব্দুল মান্নান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

সকাল ৯টা ১০ মিনিটে বিএসএমএমউর বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স সেন্টারে ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া প্রথম টিকা নিয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

সকাল ১০টা ৪২ মিনিটে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক টিকা নেন।  এরপর বেলা ১১টায় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আব্দুল মান্নান ও তথ্য সচিব খাজা মিয়া টিকা নেন।

বিএসএমএমইউয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার মজুমদার জানান, দুপুর পর্যন্ত ১২৫ জন করোনা টিকা নিয়েছেন।’

বিএসএমএমইউয়ে টিকা নেওয়ার পর ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, ‘টিকা নেওয়াটা আমার সামাজিক, রাষ্ট্রীয় ও ব্যক্তিগত দায়িত্ব। আমাকে দেখে মানুষ আস্থা পাবে, সাহস পাবে। এখানে আজ বহু মানুষ টিকা নিতে জড়ো হয়েছেন। বুধবার পর্যন্ত টিকা নেওয়া নিয়ে মানুষের মনে সংশয় ছিল। সংশয় কেটে যেতে শুরু করেছে। আমরা এটিই চাই।’

এর আগে গতকাল বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে করোনা টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঁচজনকে টিকা দেওয়া হয়। প্রথম টিকা নেন কুর্মিটোলা হাসপাতালের নার্স রুনু বেরুনিকা কস্তা।

আরও টিকা নিয়েছেন- ডা. আহমেদ লুৎফুল মোবেন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা, ট্রাফিক পুলিশের মতিঝিল বিভাগের কর্মকর্তা দিদারুল ইসলাম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ। সব মিলিয়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে বিভিন্ন পেশার ২৬ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস