ফিলিস্তিনিদের করোনার টিকা দেবে না ইসরাইল
jugantor
ফিলিস্তিনিদের করোনার টিকা দেবে না ইসরাইল

  অনলাইন ডেস্ক  

৩০ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:৫৪:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

ইহুদিবাদী ইসরাইল অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার ফিলিস্তিন জনগণকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের টিকা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

ইসরাইলি সংসদ নেসেট বলেছে, গাজা উপত্যকায যেহেতু অবরোধের আওতায় রয়েছে সে কারণে গাজার লোকজন করোনাভাইরাসের টিকা পাবে না। খবর বিবিসির।

ইসরাইলের এ ঘোষণায় ফিলিস্তিনি নেতারা বলছেন, ২০১৪ সালে ইসরাইলি আগ্রাসনের সময় যেসব ইহুদিবাদী সেনারা আটক হয়েছিল তাদেরকে মুক্ত করার জন্য ইসরাইল টিকা না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, ফিলিস্তিনি জনগণকে টিকা না দেয়ার ঘোষণার মধ্যদিয়ে তেল আবিব মৌলিক মানবাধিকারের লঙ্ঘন ঘটিয়েছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ১৯ ডিসেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ইসরাইলের এক-চতুর্থাংশ মানুষ টিকা গ্রহণ করেছে। অথচ তারা গাজা উপত্যকায় টিকা যেতে দিচ্ছে না।

এদিকে, গাজাভিত্তিক ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলেছে, তারা হাতগুটিয়ে বসে থাকবে না। সংগঠনটি আরো বলেছে, বন্দি বিনিময় চুক্তির আওতায় ইসরাইলি সেনাদেরকে মুক্ত করতে হবে, অন্য কোনোভাবে নয়।

এর আগে, জাতিসংঘ ফিলিস্তিনিদের কাছে করোনাভাইরাসের টিকা পৌঁছানো নিশ্চিত করতে ইসরাইলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। করোনাভাইরাসের মহামারীতে গাজা উপত্যকায় বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে এবং সেখানকার মৃত্যুহার অনেকটা বেশি।

ফিলিস্তিনিদের করোনার টিকা দেবে না ইসরাইল

 অনলাইন ডেস্ক 
৩০ জানুয়ারি ২০২১, ০২:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইহুদিবাদী ইসরাইল অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার ফিলিস্তিন জনগণকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের টিকা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

ইসরাইলি সংসদ নেসেট বলেছে, গাজা উপত্যকায যেহেতু অবরোধের আওতায় রয়েছে সে কারণে গাজার লোকজন করোনাভাইরাসের টিকা পাবে না। খবর বিবিসির।

ইসরাইলের এ ঘোষণায় ফিলিস্তিনি নেতারা বলছেন, ২০১৪ সালে ইসরাইলি আগ্রাসনের সময় যেসব ইহুদিবাদী সেনারা আটক হয়েছিল তাদেরকে মুক্ত করার জন্য ইসরাইল টিকা না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, ফিলিস্তিনি জনগণকে টিকা না দেয়ার ঘোষণার মধ্যদিয়ে তেল আবিব মৌলিক মানবাধিকারের লঙ্ঘন ঘটিয়েছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ১৯ ডিসেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ইসরাইলের এক-চতুর্থাংশ মানুষ টিকা গ্রহণ করেছে। অথচ তারা গাজা উপত্যকায় টিকা যেতে দিচ্ছে না।

এদিকে, গাজাভিত্তিক ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলেছে, তারা হাতগুটিয়ে বসে থাকবে না। সংগঠনটি আরো বলেছে, বন্দি বিনিময় চুক্তির আওতায় ইসরাইলি সেনাদেরকে মুক্ত করতে হবে, অন্য কোনোভাবে নয়।

এর আগে, জাতিসংঘ ফিলিস্তিনিদের কাছে করোনাভাইরাসের টিকা পৌঁছানো নিশ্চিত করতে ইসরাইলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। করোনাভাইরাসের মহামারীতে গাজা উপত্যকায় বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে এবং সেখানকার মৃত্যুহার অনেকটা বেশি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফিলিস্তিনিদের ঘরে ফেরার বিক্ষোভ