বরিশালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু
jugantor
বরিশালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু

  বরিশাল ব্যুরো  

১২ এপ্রিল ২০২১, ১৯:৫৯:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালে ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে ২ ও উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২২৫ জনে। নতুন করে ১১৫ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস।

করোনায় মৃতরা হলেন- ভোলা সদরের উকিলপাড়া এলাকার হুমায়ুন কবির (৫০) ও পিরোজপুরের নাজিরপুর এলাকার ধীরেন হালদার (৬০)। এছাড়াও ২৪ ঘণ্টায় উপসর্গ নিয়ে শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে তিন জন ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় ভোলা জেলায় ৩২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। বরিশাল জেলায় ৩১ জন, ঝালকাঠিতে ২২ জন, পটুয়াখালীতে ১৫ জন, পিরোজপুরে ১২ জন ও বরগুনায় তিন জনের দেহে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। বিভাগে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১২ হাজার ৬৩০ জন।

এর মধ্যে সর্বোচ্চ করোনায় আক্রান্তের তালিকায় এগিয়ে রয়েছে বরিশাল জেলা। এ জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ৭৫০ জন। এরপর পটুয়াখালীতে এক হাজার ৯২৫, পিরোজপুরে এক হাজার ৩৯৪, ভোলা এক হাজার ৩৮৯, বরগুনায় এক হাজার ১৩১ ও ঝালকাঠিতে এক হাজার ৪১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে মাত্র মাত্র ২৭ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। এই বিভাগে মোট সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৮৩৫ জন। চিকিৎসাধীন রয়েছে এক হাজার ৭৯৫ জন। বিভাগটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে বরিশাল জেলায়।

এ বিভাগে করোনায় মোট মৃত ২২৫ জনের মধ্যে বরিশাল জেলায় সর্বোচ্চ ৯৫ জন, এরপর পটুয়াখালীতে ৪৬ জন, পিরোজপুরে ২৮ জন, বরগুনায় ২২ জন, ঝালকাঠিতে ২০ জন এবং ভোলায় ১৪ জন।

প্রসঙ্গত, বরিশাল বিভাগে ২০২০ সালের ৯ মার্চ নারায়ণগঞ্জ ফেরত পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার এক শ্রমিকের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

বরিশালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু

 বরিশাল ব্যুরো 
১২ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বরিশালে ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে ২ ও উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২২৫ জনে। নতুন করে ১১৫ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস।

করোনায় মৃতরা হলেন- ভোলা সদরের উকিলপাড়া এলাকার হুমায়ুন কবির (৫০) ও পিরোজপুরের নাজিরপুর এলাকার ধীরেন হালদার (৬০)। এছাড়াও ২৪ ঘণ্টায় উপসর্গ নিয়ে শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে তিন জন ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় ভোলা জেলায় ৩২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। বরিশাল জেলায় ৩১ জন, ঝালকাঠিতে ২২ জন, পটুয়াখালীতে ১৫ জন, পিরোজপুরে ১২ জন ও বরগুনায় তিন জনের দেহে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। বিভাগে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১২ হাজার ৬৩০ জন।

এর মধ্যে সর্বোচ্চ করোনায় আক্রান্তের তালিকায় এগিয়ে রয়েছে বরিশাল জেলা। এ জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ৭৫০ জন। এরপর পটুয়াখালীতে এক হাজার ৯২৫, পিরোজপুরে এক হাজার ৩৯৪, ভোলা এক হাজার ৩৮৯, বরগুনায় এক হাজার ১৩১ ও ঝালকাঠিতে এক হাজার ৪১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে মাত্র মাত্র ২৭ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। এই বিভাগে মোট সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৮৩৫ জন। চিকিৎসাধীন রয়েছে এক হাজার ৭৯৫ জন। বিভাগটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে বরিশাল জেলায়।

এ বিভাগে করোনায় মোট মৃত ২২৫ জনের মধ্যে বরিশাল জেলায় সর্বোচ্চ ৯৫ জন, এরপর পটুয়াখালীতে ৪৬ জন, পিরোজপুরে ২৮ জন, বরগুনায় ২২ জন, ঝালকাঠিতে ২০ জন এবং ভোলায় ১৪ জন।

প্রসঙ্গত, বরিশাল বিভাগে ২০২০ সালের ৯ মার্চ নারায়ণগঞ্জ ফেরত পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার এক শ্রমিকের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস