এক ডোজের করোনা টিকা বানাবে পাকিস্তান
jugantor
এক ডোজের করোনা টিকা বানাবে পাকিস্তান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক  

১৪ এপ্রিল ২০২১, ১৮:২০:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে করোনা টিকা খুব বেশি পায়নি পাকিস্তান। কিন্তু এরইমধ্যে দেশটিতে করোনার সংক্রমণের মাত্রা ফের ঊর্ধ্বমূখী।

এমন পরিস্থিতিতে দেশটির বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা নিজেরাই করোনার টিকা তৈরির উদ্যোগ হাতে নিয়েছে।

চীনের সহযোগিতায় এক ডোজের করোনা টিকা বানানোর ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান।

মঙ্গলবার দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের (এনআইএইচ) নির্বাহী পরিচালক মেজর জেনারেল আমির ইকরাম পাকিস্তানের জাতীয় স্বাস্থ্য বিষয়ক সংসদীয় কমিটিকে জানিয়েছেন, শিগগিরই করোনারোধী টিকা তৈরির কাজে হাত দেবেন তারা।

পরে ভ্যাকসিনের বিষয়ে বিস্তারিত বর্ণনায় এনআইএইচের নির্বাহী পরিচালক দেশটির সাংবাদিকদের বলেন, চীনের ক্যানসিনোবায়ো ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে অংশ নিয়েছিল পাকিস্তান। চীনকে ইতোমধ্যে ভ্যাকসিনটির প্রযুক্তি পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছে পাকিস্তান। চলতি মাসেই ভ্যাকসিনের কাঁচামাল পাকিস্তানে পৌঁছাবে।

মেজর জেনারেল আমির ইকরাম আশা করেন, চলতি এপ্রিলের শেষ দিকে ভ্যাকসিন প্রস্তুতকরণে ব্যবস্থা নিতে পারবেন তারা। এর জন্য প্রয়োজনীয় সব সরঞ্জাম ও রাসায়নিক সংগ্রহ করেছে এনআইএইচ।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব মতে, এ পর্যন্ত দেশটিতে অন্তত ৭ লাখ ৩৪ হাজার মানুষ প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এতে ১৫ হাজার ৭৫৪ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

তথ্যসূত্র:দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

এক ডোজের করোনা টিকা বানাবে পাকিস্তান

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক 
১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৬:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে করোনা টিকা খুব বেশি পায়নি পাকিস্তান। কিন্তু এরইমধ্যে দেশটিতে করোনার সংক্রমণের মাত্রা ফের ঊর্ধ্বমূখী।

এমন পরিস্থিতিতে দেশটির বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা নিজেরাই করোনার টিকা তৈরির উদ্যোগ হাতে নিয়েছে।

চীনের সহযোগিতায় এক ডোজের করোনা টিকা বানানোর ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান।

মঙ্গলবার দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের (এনআইএইচ) নির্বাহী পরিচালক মেজর জেনারেল আমির ইকরাম পাকিস্তানের জাতীয় স্বাস্থ্য বিষয়ক সংসদীয় কমিটিকে জানিয়েছেন, শিগগিরই করোনারোধী টিকা তৈরির কাজে হাত দেবেন তারা।

পরে ভ্যাকসিনের বিষয়ে বিস্তারিত বর্ণনায় এনআইএইচের নির্বাহী পরিচালক দেশটির সাংবাদিকদের বলেন, চীনের ক্যানসিনোবায়ো ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে অংশ নিয়েছিল পাকিস্তান। চীনকে ইতোমধ্যে ভ্যাকসিনটির প্রযুক্তি পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছে পাকিস্তান। চলতি মাসেই ভ্যাকসিনের কাঁচামাল পাকিস্তানে পৌঁছাবে। 

মেজর জেনারেল আমির ইকরাম আশা করেন, চলতি এপ্রিলের শেষ দিকে ভ্যাকসিন প্রস্তুতকরণে ব্যবস্থা নিতে পারবেন তারা। এর জন্য প্রয়োজনীয় সব সরঞ্জাম ও রাসায়নিক সংগ্রহ করেছে এনআইএইচ।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব মতে, এ পর্যন্ত দেশটিতে অন্তত ৭ লাখ ৩৪ হাজার মানুষ প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এতে ১৫ হাজার ৭৫৪ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

তথ্যসূত্র: দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন