ভারতে করোনা প্রতিষেধকের শিশিতে তরল প্যারাসিটামল!
jugantor
ভারতে করোনা প্রতিষেধকের শিশিতে তরল প্যারাসিটামল!

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ এপ্রিল ২০২১, ২১:৫৫:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনা ভ্যাকসিন

ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এদিকে দেশটিতে ভ্যাকসিনেরও জোগান কম। এই সুযোগে একটি প্রতারক চক্র মাঠে নেমেছে।

করোনাপ্রতিষেধক রেমডিসিভির(Remedisvir)-এর খালি ভায়ালে (কাঁচের শিশিতে) তরল প্যারাসিটামল ভরে তা ভ্যাকসিন হিসেবে বিক্রি শুরু করেছিল একটি চক্র।

প্রতিটি ভ্যাকসিনের দাম নেওয়া হচ্ছিল ৩৫ হাজার টাকা!

এরকমই একটি চক্রকে গ্রেফতার করেছে ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের পুলিশ। খবর জিনিউজের।

খবরে বলা হয়, মহারাষ্ট্রে ভয়ঙ্কর আকার ধারন করেছে করোনা সংক্রমণ। রাজ্যে করোনা টিকা দেওয়া শুরু হলেও প্রয়োজনের তুলনায় তা একেবারেই কম। ফলে বেসরকারি ক্ষেত্রে টিকার চাহিদা ও দাম বাড়ছিল হুহু করে। সেই সুযোগটাই নিয়েছিল মহরাষ্ট্রের বারামতি জেলার একটি চক্র। পরে ক্রেতা সেজে অপরাধীদের গ্রেফতার করল পুলিশ।

খবরে আরও বলা হয়, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই চক্রের একটি আস্তানায় অভিযান চালায় পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় প্রশান্ত গড়ক, শঙ্কর পিসে, দিলীপ গায়কোয়াড ও সন্দীপ গায়কোয়াড নামে ৪ জনকে। ওই চক্রের শিকড় কতদূর তা জানতে চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

ভারতে করোনা প্রতিষেধকের শিশিতে তরল প্যারাসিটামল!

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনা ভ্যাকসিন
ছবি: জিনিউজ

ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এদিকে দেশটিতে ভ্যাকসিনেরও জোগান কম। এই সুযোগে একটি প্রতারক চক্র মাঠে নেমেছে।

করোনা প্রতিষেধক রেমডিসিভির (Remedisvir)-এর খালি ভায়ালে (কাঁচের শিশিতে) তরল প্যারাসিটামল ভরে তা ভ্যাকসিন হিসেবে বিক্রি শুরু করেছিল একটি চক্র।  

প্রতিটি ভ্যাকসিনের দাম নেওয়া হচ্ছিল ৩৫ হাজার টাকা!

এরকমই একটি চক্রকে গ্রেফতার করেছে ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের পুলিশ। খবর জিনিউজের।

খবরে বলা হয়, মহারাষ্ট্রে ভয়ঙ্কর আকার ধারন করেছে করোনা সংক্রমণ। রাজ্যে করোনা টিকা দেওয়া শুরু হলেও প্রয়োজনের তুলনায় তা একেবারেই কম। ফলে বেসরকারি ক্ষেত্রে টিকার চাহিদা ও দাম বাড়ছিল হুহু করে। সেই সুযোগটাই নিয়েছিল মহরাষ্ট্রের বারামতি জেলার একটি চক্র।  পরে ক্রেতা সেজে অপরাধীদের গ্রেফতার করল পুলিশ।

খবরে আরও বলা হয়, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই চক্রের একটি আস্তানায় অভিযান চালায় পুলিশ।  গ্রেফতার করা হয় প্রশান্ত গড়ক, শঙ্কর পিসে, দিলীপ গায়কোয়াড ও সন্দীপ গায়কোয়াড নামে ৪ জনকে। ওই চক্রের শিকড় কতদূর তা জানতে চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস