১৫ দিনের কঠোর লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গ
jugantor
১৫ দিনের কঠোর লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৫ মে ২০২১, ১৩:২৫:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

১৫ দিনের লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গ

কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারত। করোনায় আক্রান্তদের প্রাণহানিতে দেশটি মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে শনিবার থেকে ১৫ দিনের জন্য পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন ঘোষণা হয়েছে। করোনা সংক্রমণের রেকর্ড কমাতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে মমতা সরকার।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, আগামী ৩০ মে পর্যন্ত ১৫ দিনের জন্য জরুরি পরিষেবা ছাড়া সব সরকারি, বেসরকারি দফতর বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করেছে নবান্ন। লোকাল ট্রেন আগেই বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এবার বাস, মেট্রো,এবং ফেরিও সম্পূর্ণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ট্যাক্সি এবং অটোও চলাচল করবে না। আগের মতোই বন্ধ থাকবে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এর আগে পশ্চিমবঙ্গে করোনায় একদিনে ১৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা রাজ্যে এ পর্যন্ত একদিনে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু।

শুক্রবার (২৪ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা আবারও প্রায় ২১ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছেছে। এর মধ্যে উত্তর ২৪ পরগনায় নতুন করে চার হাজারের বেশি শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় চার হাজার।

আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়তে থাকায় সংক্রমণের মোট হার পৌঁছেছে নয় দশমিক ৬৮ শতাংশে, যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ।

১৫ দিনের কঠোর লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৫ মে ২০২১, ০১:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
১৫ দিনের লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গ
প্রতীকী ছবি।

কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারত। করোনায় আক্রান্তদের প্রাণহানিতে দেশটি মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে শনিবার থেকে  ১৫ দিনের জন্য পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন ঘোষণা হয়েছে। করোনা সংক্রমণের রেকর্ড কমাতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে মমতা সরকার।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, আগামী ৩০ মে পর্যন্ত ১৫ দিনের জন্য জরুরি পরিষেবা ছাড়া সব সরকারি, বেসরকারি দফতর বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করেছে নবান্ন। লোকাল ট্রেন আগেই বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এবার বাস, মেট্রো,এবং ফেরিও সম্পূর্ণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ট্যাক্সি এবং অটোও চলাচল করবে না। আগের মতোই বন্ধ থাকবে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এর আগে পশ্চিমবঙ্গে করোনায় একদিনে ১৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা রাজ্যে এ পর্যন্ত একদিনে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু। 

শুক্রবার (২৪ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা আবারও প্রায় ২১ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছেছে। এর মধ্যে উত্তর ২৪ পরগনায় নতুন করে চার হাজারের বেশি শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় চার হাজার। 

আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়তে থাকায় সংক্রমণের মোট হার পৌঁছেছে নয় দশমিক ৬৮ শতাংশে, যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস